আগামী নির্বাচন গ্রহণযোগ্য করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে : সিইসি

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২২ ৯:১০:১৯ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, ‘নির্বাচন সব সময় একটি চ্যালেঞ্জ, আগামী নির্বাচন গ্রহণযোগ্য করার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে।’

আজ রোববার বিকেলে সুপ্রিম কোর্টের জাজেস লাউঞ্জে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান শেষে নতুন প্রধান নির্বাচন কমিশনার সংবাদকর্মীদের সামনে এ কথা বলেন। এর আগে বিকেল সাড়ে ৪টায় প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী নতুন সিইসি ও অপর ইসিদের শপথবাক্য পাঠ করান।

সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, ‘শপথ নেওয়ার পর থেকেই আমাদের দায়িত্ব শুরু হয়েছে। আমরা সবাই মিলে বসে ভাব বিনিময় কবর এবং করণীয় নির্ধারণ করব।’

ভোটারদের আস্থা ফিরিয়ে আনার জন্য আপনারা কী পদক্ষেপ নেবেন, এমন প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, ‘সংবিধান অনুযায়ী আমরা দায়িত্ব পালনের চেষ্টা করব। নির্বাচন সবসময়ই একটি চ্যালেঞ্জ, আমরা আগামী নির্বাচনকে গ্রহণযোগ্য করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করব।’

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, ‘শপথের প্রতি অনুগত থেকে দায়িত্ব পালনের সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার মাধ্যমে আমরা শপথ গ্রহণ করেছি। শপথ গ্রহণ করার পরেই আমরা কার্যত পদে অধিষ্ট হয়ে থাকি। সেই হিসেবে এই মুহূর্তে আমরা প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও কমিশনার।’

কাজী হাবিবুল আউয়াল আরও বলেন, ‘আমাদের ওপর এখন দায়িত্ব আরোপিত হয়ে গেছে। তারপরেও এটা সত্য আমরা এখনও বাস্তব দায়িত্ব গ্রহণ করিনি। আমরা এখনও কার্যস্থলে গিয়ে দায়িত্ব গ্রহণ করিনি। আমরা আগামীকাল আমাদের কর্মস্থলে যাব। তারপরে আমরা নিজেদের দায়িত্ব নিয়ে আলাপ-আলোচনা করব ও ভাবের আদানপ্রদান করব এবং সংবিধান আইনে আমাদের উপরে কী কী দায়িত্ব আরোপিত হয়েছে, সেগুলো জানব এবং ভবিষ্যতে এই দায়িত্ব কীভাবে পালন করব। তবে এখন কীভাবে কী করব, এই মুহূর্তে বলতে পারব না।’

সিইসি বলেন, ‘আমাদের উপর যে দায়িত্ব অর্পিত হয়েছে, তা সঠিকভাবে যেন শপথের উপর অনুগত থেকে পালন করতে পারি। আপনাদের কাছে এই দোয়াটা করছি। আমাদের কাছে এখন প্রতিটি ভোট একটা চ্যালেঞ্জ এবং মানুষের জীবনও একটা চ্যালেঞ্জ। কোনো চ্যালেঞ্জকে তো ভয় পেলে হবে না। চ্যালেঞ্জকে মোকাবিলা করতে হবে। আমরা দায়িত্ব নিলে চ্যালেঞ্জের বিষয়টি বুঝতে পারব, কীভাবে আমরা আগাবো। নির্বাচন একটি বিশাল কর্মযজ্ঞ। সবারই দায়িত্ব থাকে। আমি যে সহকমীদের পেয়েছি, সবাইকে নিয়ে সর্বাত্মক দেওয়ার চেষ্টা করব।’

শপথ অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. নুরুজ্জামান, এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি ওবায়দুল হাসান প্রমুখ।

এর আগে গতকাল শনিবার সিইসি হিসেবে সাবেক সিনিয়র সচিব কাজী হাবিবুল আউয়ালকে নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। একই সঙ্গে চার কমিশনারকেও নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত আলাদা দুটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। সংবিধানের ১১৮(১) অনুচ্ছেদে দেওয়া ক্ষমতাবলে রাষ্ট্রপতি এ নিয়োগ দিয়েছেন বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়।

নিয়োগপ্রাপ্ত চার কমিশনার হলেন, সাবেক জেলা ও দায়রা জজ রাশিদা সুলতানা, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আহসান হাবীব খান, সাবেক সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর এবং সাবেক সিনিয়র সচিব আনিছুর রহমান।

আরো পড়ুন : দেশের সঠিক ইতিহাস প্রজন্মান্তরে ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বার প্রধানমন্ত্রীর

জনপ্রিয়