আটোয়ারীতে বঙ্গমাতার ৯২তম জন্ম বার্ষিকী পালিত

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, আগস্ট ৮, ২০২২ ৬:১৩:৫৯ অপরাহ্ণ

মোঃ ইউসুফ আলী, আটোয়ারী (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি
“মহিয়সী বঙ্গমাতার চেতনা, অদম্য বাংলাদেশের প্রেরণা” প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর সহধর্মীনি বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্ম বার্ষিকী পালিত হয়েছে।

উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে সোমবার (০৮ আগস্ট) সকালে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব এঁর ৯২তম জন্ম বার্ষিকী পালন উপলক্ষে স্বাধীকার আন্দোলন, অসহযোগ আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ এবং যুদ্ধোত্তর বাংলাদেশে অসহায় নির্যাতিত নারীদের সহায়তা ও পুনর্বাসনে ভুমিকা সহ বঙ্গমাতার জীবনীভিত্তিক আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মুসফিকুল আলম হালিম। উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার রেজাউন নবী রাজার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ তৌহিদুল ইসলাম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি অফিসার মোছাঃ নুরজাহান খাতুন, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা করুনা কান্ত রায় ও সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ নজরুল ইসলাম।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, জাতির জনকের আমৃত্যু সঙ্গী, বাংলার মহিয়সী নারী বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা ১৯৩০ সালের ৮ আগস্ট গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর ডাক নাম ছিল রেনু। বঙ্গবন্ধু তাঁকে এ নামে ডাকতেন। তার পিতার নাম শেখ জহুরুল হক এবং মাতার নাম হোসনে আরা বেগম। এক ভাই দুই বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন ছোট। তিনি পাঁচ বছর বয়সেই পিতামাতা হারান। আট বছর বয়সে চাচাতো ভাই শেখ মুজিবের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। এরপর থেকেই তিনি ছিলেন জাতির পিতার আমরণ সঙ্গী। এই মহিয়সী নারী ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে সপরিবারে খুনিচক্রের বুলেটের আঘাতে নির্মমভাবে শহীদ হন।

আলোচনা শেষে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়।

আরও পড়ুন :আটোয়ারীতে শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী পালিত

জনপ্রিয়