আরও ৫ বছর খেলতে পারবেন সাকিব!

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, মে ২৯, ২০২২ ৮:৫৪:০৫ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
মাস দুয়েক আগে বয়সের কাটা পঁয়ত্রিশ স্পর্শ করেছে সাকিব আল হাসানের। বয়স বাড়লেও সাকিবের পারফরম্যান্স এখনও সেরাদের কাতারেই আছে। সদ্য শেষ হওয়া লঙ্কানদের বিপক্ষে টেস্টে দশমবারের মতো একই ম্যাচে ফিফটি ও পাঁচ উইকেট শিকারের কীর্তি গড়েছেন সাকিব।

এমন অসাধারণ কীর্তি গড়ার পথে সাকিবের সামনে এখন কেবল ইয়ান বোথাম। যিনি এমন কীর্তি গড়েছেন ১১ বার। এদিকে কেবল পারফরম্যান্স নয়, সাকিব মানেই বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে একসুতোয় গাঁথা, উজ্জীবিত করা। সাকিবের উপস্থিতি মানে দলে বাড়তি অনুপ্রেরণা কাজ করা।

সাকিবের ক্রিকেট মস্তিষ্ক নিয়েও প্রশ্ন তোলার কোনো সুযোগ নেই কারও। বাংলাদেশের বিবেচনায় ক্রিকেট অঙ্গনে সাকিবের ধারে কাছে নেই আর কারও। কিন্তু বয়সের ঘড়ি টিকটিক করে এগোনোর সঙ্গে সঙ্গে সাকিবেরও থামার আলোচনা চলে আসে অবধারিতভাবে।

তবে সাকিবদের বর্তমান স্পিন বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথ মনে করছেন, সাকিব বাংলাদেশের হয়ে চাইলেই আরও পাঁচ বছর সার্ভিস দিতে পারবেন। তবে এর জন্য সাকিবকে ফিটনেস সচেতন হতে হবে বলে মনে করেন এই লঙ্কান কোচ। হেরাথের মতে, কেবল ফিটনেস সচেতন হলে সাকিব খেলতে পারবেন আরও পাঁচ বছর।

আজ (২৯ মে) গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় এমন কথা জানান হেরাথ। সাংবাদিকরা এই স্পিন বোলিং কোচের কাছে জানতে চান, সাকিবের এখন যে অবস্থায় আছে, এরপর বাংলাদেশের হয়ে আরও পাঁচ বছর খেলতে পারবেন এই ক্রিকেটার?

এর উত্তরে হেরাথ বলেন, ‘সে অনেক অভিজ্ঞ একজন ক্রিকেটার। আর সে সব সময় তার বেঞ্চমার্ক ধরে রেখেছে এবং সচেতন। তাকে লম্বা সময় খেলতে হলে নিজের ফিটনেস নিয়ে সচেতন থাকলে হবে। যদি সে ফিটনেস ধরে রাখতে পারে, তাহলে সে খেলতেই পারবে।’

পাঁচ বছর খেললে সাকিবের বয়স হবে চল্লিশ। অবশ্য সাকিবের ক্যালিবারের ক্রিকেটারের জন্য বয়স খুব একটা বড় ইস্যু হওয়ার কথা নয়। ফলে, সাকিব যদি সত্যি ফিটনেস সচেতন হয়ে খেলা চালিয়ে যান, তবে সবচেয়ে বেশি উপকার হবে বাংলাদেশ ক্রিকেটেরই।

আরও পড়ুন : পরিবর্তনের ডাক দিলেন বাংলাদেশ কোচ রাসেল ডমিঙ্গো

জনপ্রিয়