মারিওপোলের নাট্যশালায় রুশ হামলা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, মার্চ ১৭, ২০২২ ২:৪৬:১৫ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
ইউক্রেনের মারিওপোল শহরের একটি নাট্যশালায় রুশ বাহিনী বোমা হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করছেন মারিওপোলের কর্মকর্তারা। গোলাগুলি থেকে বাঁচতে সেখানে এক হাজারের বেশি মানুষ লুকিয়ে ছিল বলে দাবি করা হচ্ছে। সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মারিওপোলের কর্মকর্তারা বলছেন, এ হামলার আগে অন্তত এক হাজার বেসামরিক নাগরিক ওই নাট্যশালায় আশ্রয় নিয়েছিল। তবে হামলায় হতাহতের সংখ্যা এখনও জানা যায়নি।

ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্র কুলেবা টুইটারে একটি ভবনের ধ্বংসাবশেষের ছবি প্রকাশ করেছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘মারিওপোলে আবার ভয়ংকর যুদ্ধাপরাধের ঘটনা ঘটল। একটি নাট্যশালায় শত শত নিরপরাধ মানুষ আশ্রয় নিয়েছিল, সেখানে ব্যাপক হামলা চালিয়েছে রুশ সেনারা। ওই ভবনটি পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গেছে।’

ইউক্রেনের মাইকোলাইভ শহরের মেয়র সেনকেভিচ বলছেন, ‘আমি এটিকে রুশ নাৎসিবাদ বলব। কারণ, তারা সাধারণ মানুষকে হত্যা করছে।’

এদিকে, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে যুদ্ধাপরাধী বলে আখ্যা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। হোয়াইট হাউসে এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে পুতিনের ব্যাপারে এমন মন্তব্য করেন তিনি। এ মন্তব্যের পর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ক্রেমলিন।

বিবিসি বলছে, পুতিনের নিন্দা করতে গিয়ে এই প্রথম পুতিনকে ‘যুদ্ধাপরাধী’ বলে আখ্যা দিয়েছেন বাইডেন। পরে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়, বাইডেন মন থেকেই পুতিনের বিরুদ্ধে এমন মন্তব্য করেছেন।

এদিকে, বাইডেনের এমন মন্তব্য অগ্রহণযোগ্য এবং ক্ষমার অযোগ্য বলে জানিয়েছে ক্রেমলিন।

রাশিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা তাস-এর বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট পুতিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকোভ বলেছেন, ‘একজন রাষ্ট্রপ্রধানের পক্ষ থেকে এমন মন্তব্য অগ্রহণযোগ্য ও ক্ষমার অযোগ্য বলে আমরা মনে করি। তাদের বোমায় বিশ্বে লাখও মানুষ নিহত হয়েছে।’

আরো পড়ুন : ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের ক্ষতি সিরিয়া-চেচনিয়ার যুদ্ধের চেয়েও বেশি : জেলেনস্কি

জনপ্রিয়