উপকুলীয় জেলেদের জীবনরক্ষাকারী সরঞ্জাম বিতরণ করলেন কোস্টগার্ডের মহাপরিচালক

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১০, ২০২২ ৮:১২:৪০ অপরাহ্ণ

মাসুদ রানা, মোংলা প্রতিনিধি:
সুন্দরবন সংলগ্ন উপকূলীয় অঞ্চলের প্রান্তিক জেলেদের মধ্যে শীতবস্ত্র, লাইফ জ্যাকেট, লাইভ বয়া সহ জীবনরক্ষাকারী অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্র বিতরণ করেছে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড। ১০ নভেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরে সুন্দরবনের গোলখালী এলাকার সাগর ও সুন্দরবনে মাছ ধরা জেলে ও অসহায় পরিবারের মাঝে এসব সামগ্র বিতরণ করেন কোস্টগার্ডের মহাপরিচালক রিয়ার এডমিরাল এম আশরাফুল হক চৌধুরী। কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের গোয়েন্দা কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এম. মামুনুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই বাংলাদেশ কোস্টগার্ড এখতিয়ারভুক্ত এলাকা ও সুন্দরবনের দস্যুদমন, চোরাচালান, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ, মৎস্য ও বনজসম্পদ সংরক্ষণের পাশাপাশি প্রান্তিক জেলেসহ অসহায় ও দুস্থ মানুষের মধ্যে সাহায্য সহযোগিতা করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় সুন্দরবনের উপকুলীয় গোলখালী এলাকায় জেলেদের মাঝে কম্বল, টর্চলাইট, লাইফ জ্যাকেট, লাইফবয়া, রেইনকোট বিতরণ করেছে। এ ছাড়া ওই এলাকায় সুপেয় পানির ব্যবস্থার জন্য নলকুপ স্থাপনের আশ্বাস দেয়া হয়।
এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড-এর মহাপরিচালক রিয়ার এডমিরাল আশরাফুল হক চৌধুরী। এছাড়া উক্ত অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড-এর অন্যান্য উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণও উপস্থিত ছিলেন। এর আগে কোস্ট গার্ড এর মহাপরিচালক পশুর নদীতে কোস্ট গার্ডের আধুনিকায়নে নতুনভাবে সংযোজিত বিভিন্ন সরঞ্জাম সম্বলিত বোট সমূহের মাধ্যমে পানিতে অনিচ্ছাকৃতভাবে নিঃসরণকৃত তেল অপসারন মহড়া অবলোকন করেন তিনি।

কোস্টগার্ড বলেন, ঘূর্ণিঝড়, জলোচ্ছ্বাস, বন্যা, মহামারিসহ সব অপ্রত্যাশিত খারাপ পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সর্বদা প্রস্তুত রয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ এলাকায় অসহায় ও দুস্থ মানুষের মধ্যে কোস্টগার্ডের নিয়মিত সহযোগিতা অব্যাহত রয়েছে। ভবিষ্যতেও এ ধরনের কার্যক্রম চলমান থাকবে। তাই সুন্দরবন সংলগ্ন এলাকায় নয় কোস্টগার্ড সারা বাংলাদেশের উপকুলীয় এলাকার অসহায় জেলে বাওযালী ও দুস্থঃ মানুষের সহায়তার জন্য পাশে রয়েছে যা বভিষ্যতেও থাকবে।

জেলোর জানায়, সুন্দরবনের গহীনে মাছ ধরতে গেলে জীবনরক্ষাকারী সরঞ্জাম না থাকায় ঝড়ের সময় জীবন রক্ষা করতে কষ্ট হয়, কোস্টগার্ডের পক্ষ থেকে জীবনরক্ষাকারী সরঞ্জাম পেয়ে খুসি জেলেরা।

কোস্টগার্ডের প্রকৌশল পরিদপ্তরের পরিচালক ক্যাপ্টেন মোঃ শহিদুল্লাহ আল ফারুক ই বলেন, সাগর ও সুন্দরবন সংলগ্ন উপকুলীয় এলাকার মানুষের পাশে দুর্যোগ ও বিপদের সময় কোস্ট গার্ড তাদের পাশে আছে এবং বভিষ্যতেও এ সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলেও জানায় কোস্ট গার্ডের এ কর্মকর্তা। সাগর ও সুন্দরবন সংলগ্ন উপকুলীয় এলাকার জেলে-বাওয়ালীদের ঝড় জলোচ্ছাস ও বিপদের সময় পাশে পাই কোস্টগার্ডকে এমনটাই জানালেন সুন্দরবন উপকুলবাসী।

আরও পড়ুন :মোংলায় ইউএনওকে গণসংবর্ধনা

জনপ্রিয়