এক মাস ব্যাট ছুঁয়ে দেখেননি কোহলি

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, আগস্ট ২৭, ২০২২ ৬:১০:২০ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক:
সপ্তাহখানেক আগে ১৯ আগস্ট আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শতকহীন ১০০০তম দিন পার করেছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের সুপার স্টার বিরাট কোহলি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৭০ সেঞ্চুরির মালিক এত লম্বা সময় ধরে তিন অঙ্কের দেখা না পাওয়া বিস্ময়ের। সাম্প্রতিক সময়ে ভুগছিলেন রানখরায়ও।

সে সময়ে অনেকেই এই ক্রিকেটারকে বলেছিলেন বিশ্রাম নিতে। অবশেষে বিশ্রাম নিয়েছেন কোহলি। ক্যারিয়ারের শুরুর পর এই প্রথমবারের মতো নিজেকে ফিরে পাওয়ার তাড়নায় টানা ১ মাস প্রিয় ব্যাটটাই ছুঁয়ে দেখেননি কোহলি। এছাড়াও মানসিকভাবে নিজেকে চাঙা অবস্থায় ফিরে পেতে মিথ্যা আত্মবিশ্বাসও ছুঁড়ে ফেলেছেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার।

সম্প্রতি স্টার স্পোর্টস ও হটস্টারে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের সম্পর্কে অনেক খোলাখুলি কথা বলেছেন কোহলি। যেখানে এই ক্রিকেটার মানসিক স্বাস্থ্য নিয়েও কথা বলেছেন। জানিয়েছেন, মিথ্যা আত্মবিশ্বাস দেখানো খুবই খারাপ একটা বিষয়। এরচেয়েও মানসিক অবস্থা যে খারাপ যাচ্ছে এটা স্বীকার করা অনেক ভালো।

সেই সাক্ষাৎকারে কোহলি বলেন, ‘স্বীকার করতে আমার কোনো লজ্জা নাই যে মানসিকভাবে আমি বাজে অবস্থায় ছিলাম। ১০ বছরের মধ্যে প্রথমবার, ১ মাস ব্যাট ধরে দেখিনি। সম্প্রতি উপলব্ধি করতে পারি, তাড়নার ক্ষেত্রে নিজেকে ফাঁকি দিচ্ছিলাম আমি। নিজেকে জোর করে বোঝানোর চেষ্টা করছিলাম যে, ‘আমার ভেতর তাড়না আছে।’ কিন্তু শরীর আমাকে বলছিল থেমে যেতে। আমার মাথা আমাকে বলছিল একটু পিছু হটতে ও বিরতি নিতে।

আমাকে মানসিকভাবে অনেক শক্ত হিসেবে ধরে নেওয়া হয় এবং আমি আসলেও তা। কিন্তু সেটিরও একটি সীমা আছে এবং সেই সীমা মেনে নেওয়া উচিত। নইলে তা (মানসিক) স্বাস্থ্যের জন্য আরও খারাপ হতে পারে।

এই সময়টা আমাকে অনেক কিছু শিখিয়েছে, যেসব আমি আসতে দিতে চাইনি। তবে শেষ পর্যন্ত যখন তা এলো, আমি আলিঙ্গন করেই নিয়েছি।

এরকম কিছু সবার সঙ্গেই হতে পারে। কিন্তু আমরা এসব প্রকাশ করি না কারণ দ্বিধায় থাকি। আমরা চাই না লোকে মনে করুক যে আমরা মানসিকভাবে দুর্বল। কিন্তু বিশ্বাস করুন, মানসিক দুর্বলতা স্বীকার করে নেওয়ার চেয়ে মানসিকভাবে শক্ত থাকার ভান ধরা আরও অনেক বেশি খারাপ।’

আরও পড়ুন : ফিফার নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেল ভারত

জনপ্রিয়