এসডিজি বাস্তবায়নে বড় বাধা তথ্য ঘাটতি

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, এপ্রিল ২৮, ২০১৯ ৫:২৬:২৬ অপরাহ্ণ
SDG

অনলাইন ডেস্ক:
জাতিসংঘ ঘোষিত ১৫ বছর মেয়াদি (২০১৫-৩০) টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে তথ্যের ঘাটতিকে বড় বাধা হিসেবে দেখছেন নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা। পাশাপাশি এসডিজি বাস্তবায়নে অর্থসংকটও বেশ প্রকট বলে মনে করেন তাঁরা। গতকাল শনিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত দিনব্যাপী নাগরিক সম্মেলনে এসব কথা বলেন বক্তারা। নাগরিক প্ল্যাটফর্মের আহ্বায়ক বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের (সিপিডি) সম্মানীয় ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী সেশনে বক্তব্য দেন জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পো। অনুষ্ঠানে এসডিজি বাস্তবায়ন অগ্রগতি প্রতিবেদন তুলে ধরেন সিপিডির নির্বাহী পরিচালক ড. ফাহমিদা খাতুন। চার বছরে বাংলাদেশে এসডিজি বাস্তবায়নের চিত্র তুলে ধরতে এই সংলাপের আয়োজন করে এসডিজি বাস্তবায়নে নাগরিক প্ল্যাটফর্ম।

প্রতিবেদনে ড. ফাহমিদা খাতুন দেখিয়েছেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) বাস্তবায়নকালের চার বছর পার হলেও অগ্রগতি মূল্যায়নে তথ্যের ঘাটতি বড় ধরনের দুর্বলতা হিসেবে পরিলক্ষিত হয়েছে। এসডিজির মোট ১৭ অভীষ্টের মধ্যে প্রধান ছয়টি অভীষ্ট বাস্তবায়নে ৬৮টি লক্ষ্য ও ৯৫টি সূচক বেঁধে দেওয়া হলেও বেশ কিছু লক্ষ্য ও সূচকের অগ্রগতির তথ্য বাংলাদেশে নেই। আবার বেশ কিছু লক্ষ্য ও সূচক বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পৃক্তও নয়।

ফাহমিদা খাতুন বলেন, এসডিজি বাস্তবায়নের তথ্যের ঘাটতির পাশাপাশি অর্থায়ন সংকটও একটি বড় সমস্যা। তথ্য না থাকলে দেশ কোথায় আছে আর কোথায় যাওয়া দরকার তা জানা খুবই কঠিন। তথ্যের ঘাটতি থাকলে এসডিজিতে দেশ কতটুকু এগিয়েছে, সেটিও জানা কঠিন।

অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘অনেক কিছুর অভাবের মূলে রয়েছে দারিদ্র্য। অনেকেই বলছেন, বৈষম্য মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে। আমরাও সেটা স্বীকার করছি। সবার আগে দারিদ্র্য দূর করতে হবে। এরপর দূর করতে হবে বৈষম্য।’ এসডিজি বাস্তবায়নে তথ্য ঘাটতির পাশাপাশি অর্থায়নের সমস্যা রয়েছে বলে স্বীকার করেন মন্ত্রী। এসডিজির লক্ষ্য পূরণে ২০৩০ সালের মধ্যে ৯২ হাজার ৮০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করতে হবে বলে মন্ত্রী জানান।

জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পো বলেন, এসডিজি অর্জনে তথ্যের ঘাটতি দূর করার উদ্যোগ নিতে হবে। উন্নয়নের সুবিধা সবার কাছে পৌঁছে দিতে স্থানীয়করণের ওপর গুরুত্ব দেওয়ার তাগিদ দেন তিনি। এ ছাড়া এসডিজি বাস্তবায়নে নাগরিক সমাজকে আরো সম্পৃক্ত করার উদ্যোগ নেওয়ার পরামর্শ দেন তিনি। কালের কণ্ঠ।

আরও পড়ুন:সোমবার বিনিয়োগকারীদের প্রতীকী গণ-অনশন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

জনপ্রিয়