কাতারের লজ্জাজনক বিশ্বরেকর্ড

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শুক্রবার, নভেম্বর ২৫, ২০২২ ১০:২৯:৪৩ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক:
৯২ বছরের ফুটবল বিশ্বকাপের ইতিহাসে এর আগে কখনো কোনো স্বাগতিক দল শুরুর দুই ম্যাচে হার দেখেনি। তবে ফুটবল বিশ্বকাপের ২২তম আসরে এসে সেই চিত্র বদলে গেল। লজ্জার একটি বিশ্বরেকর্ডে নাম লেখালো এবারের বিশ্বকাপের স্বাগতিক দেশ কাতার।

প্রথমবারের মতো ফুটবল বিশ্বকাপের মঞ্চে প্রথম দুই ম্যাচে হারের তিক্ত স্বাদ পেল স্বাগতিক দেশ। প্রথম ম্যাচে ইকুয়েডরের কাছে হারের পর আজ (২৫ নভেম্বর) সেনেগালের বিপক্ষেও হারল কাতার। আল থুমামা স্টেডিয়ামে দুই দলের মুখোমুখি সাক্ষাতে সেনেগাল ৩-১ গোল ব্যবধানে জয় পেয়েছে।

প্রথম ম্যাচে ইকুয়েডরের বিপক্ষে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি কাতারের ফুটবলাররা। তবে সেনেগালের বিপক্ষে সেই হিসেবে ভালোই লড়াই করেছে কাতারিয়ানরা। তবে স্ট্রাইকারদের ব্যর্থতায় হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় স্বাগতিকদের।

ম্যাচটিতে প্রথমার্ধ শেষেই ১-০ গোল ব্যবধানে এগিয়ে ছিল সেনেগাল। দলটির পক্ষে প্রথমার্ধে গোল করেছিলেন বোলায়ে দিয়া। খেলার ৪১তম মিনিটে গোল দিয়েছেন এই ফুটবলার।

দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমেই আরেকটি গোল দিয়ে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় আফ্রিকান ঈগলরা। দলটির পক্ষে দ্বিতীয় গোল করেন ফামারা দিদিউ। ম্যাচের ৭৮তম মিনিটে কাতারের পক্ষে মোহাম্মদ মুন্তারি একটি গোল পরিশোধ করে খেলায় ফেরার ইঙ্গিত দেন।

তবে খেলার ৮৪তম মিনিটে সেনেগালের পক্ষে বাম্বা দিয়েং গোল দিয়ে ৩-১ গোল ব্যবধানের জয় নিশ্চিত করেন। টানা দুই হারে এক ম্যাচ আগেই বিশ্বকাপ থেকে প্রায় ছিটকে গেল স্বাগতিকরা। অন্যদিকে এই জয়ে বিশ্বকাপের মঞ্চে টিকে রইলো সাদিও মানের দল।

আরও পড়ুন : ওয়েলসের বিরুদ্ধে ইরানের নাটকীয় জয়

জনপ্রিয়