কেশবপুরে ৬ ইউপিতে নির্বাচিত হলেন যারা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ৬, ২০২২ ৪:৫৫:২১ অপরাহ্ণ

হাফিজুর শেখ, যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ
৫ম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে যশোরের কেশবপুর ঊপজেলার ১১টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সকাল থেকে দু’ একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্যদিয়ে অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে। নুতনমুলগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে বহিরাগতরা ভোট কেন্দ্রে ঢুকে জাল ভোট দেয়ার ঘটনায় দায়িত্বরত প্রিজাইডিং অফিসার নিখিল চঁন্দ্র দাশ ভোট গ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করেন।

উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের মধ্যে বেসরকারি ফলাফলে নৌকা প্রতীকে বিজয়ী হয়েছেন ৪ জন, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ৪ জন ও স্বতন্ত্র (বিএনপি) ২ জন বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন বলে নির্বাচনে দায়িত্বরত উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা রিজিবুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কেশবপুর সদর ইউনিয়নের ফলাফল ঘোষনা স্থগিত করা হয়েছে। নির্বাচিতরা হলেন ত্রিমোহিনী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী আনিসুর রহমান (আনারস), সাগরদাঁড়ি ইউনিয়নে কাজী মুস্তাফিজুল ইসলাম (চশমা), মজিদপুর ইউনিয়নে বিএনপি সমর্থিত হুমায়ুন কবীর পলাশ (আনারস), বিদ্যানন্দকাঠি ইউনিয়নে আমজাদ হোসেন (আনারস), মঙ্গলকোট ইউনিয়নে আব্দুল কাদের বিশ্বাস (নৌকা), পাঁজিয়া ইউনিয়নে জসিম উদ্দিন (নৌকা), সুফলাকাটি ইউনিয়নে এস এম মুনজুর রহমান (চশমা), গৌরিঘোনা ইউনিয়নে এস এম হাবিবুর রহমান (নৌকা), সাতবাড়িয়া ইউনিয়নে বিএনপি সমর্থিত গোলাম মোস্তফা বাবু (চশমা) ও হাসানপুর ইউনিয়নে তৌহিদুজ্জামান (নৌকা)।

৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত ভোটাররা লাইনে দাড়িয়ে স্ব-স্ব কেন্দ্রে তাদের ভোট প্রদান করছেন। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সরকার দলীয় আওয়ামী লীগের মনোনীত ১১জন প্রার্থী নৌকা প্রতীকের বিপরীতে একই দলের একাধিক স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ মোট ৪৮জন চেয়ারম্যান প্রার্থী এ নির্বাচনে লড়েছেন।

এরমধ্যে কেশবপুর সদর ইউনিয়নে বিএনপির আলাউদ্দীন আলাসহ ১৪ জন বিএনপি নেতা ও সমর্থক স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিভিন্ন প্রতীকে এ নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন।

কেশবপুর উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৮৫ হাজার ৯৬৫ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৯৪ হাজার ২০৮ এবং মহিলা ভোটার ৯১ হাজার ৭৫৭ জন।

কেশবপুর সদরের দোরমুটিয়া, ৩নং মজিদপুর, কওমি মাদরাসা, প্রতাবপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১১ নং হাসানপুর উইনিয়ন পরিষদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ প্রতিটা ভোট কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি ছিলো লক্ষণীয়।
প্রার্থীরা বলেছেন, কেশবপুরে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটগ্রহণ হয়েছে।

ভোটগ্রহণের লক্ষে প্রতিটা ইউনিয়নে অবস্থিত বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মোট ১০৪টি ভোট কেন্দ্র স্থাপন করা হয়।

প্রতিটা কেন্দ্রে র‌্যাব, পুলিশ ও আনসারসহ বিপুল সংখ্যাক আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যসহ প্রতি ইউনিয়নে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন করা হয়। এর পাশাপাশি আরো তিনজন নির্বাহী ম্যাজিট্রেট ভোট চলাকালে কেন্দ্রে কেন্দ্রে টহল দিতে দেখা যায়।

১১টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা নিয়ে কেশবপুর উপজেলা গঠিত।উপজেলা নির্বাচন অফিসার বজলুর রশিদ বলেন, দুই একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া মোটামুটি প্রতিটা কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ হয়েছে।

জনপ্রিয়