চট্টগ্রামকে উড়িয়ে দিলো কুমিল্লা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, জানুয়ারি ৩১, ২০২২ ৮:৪০:০৬ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
গেল ম্যাচেই দুইশ ছাড়ানো ইনিংস নিয়ে দারুণ জয় তুলে নেয় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। কিন্তু, জয়ের ছন্দ ছাপিয়ে চট্টগ্রাম শিবিরে অস্থিরতা শুরু হয় মেহেদী হাসান মিরাজকে নিয়ে। এ অস্থিরতার মধ্যে আজ মাঠে নেমে কুমিল্লার কাছে পাত্তাই পেল না চট্টগ্রাম। ব্যাটে-বলের দাপটে চট্টগ্রামকে উড়িয়ে জয়ের ছন্দ ধরে রেখেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

আজ সোমবার বিপিএলের ১৩তম ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে ৫২ রানে হারিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। এই নিয়ে তিন ম্যাচ খেলে তিনটিতেই জিতেছে ইমরুল কায়েসের দল। ছয় পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে আছে কুমিল্লা। তিন ম্যাচ বেশি খেলে সমান ছয় পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয়তে আছে চট্টগ্রাম।

১৭৪ রানের বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ব্যাটিংয়ে হতাশ করেছে চট্টগ্রাম। টপ অর্ডারদের ব্যর্থতার পর দায়িত্ব নিতে পারেননি সাব্বির-মিরাজরা। স্রোতের বিপরীতে ছিলেন কেবল উইল জ্যাকস। সতীর্থদের আসা-যাওয়ার মিছিলে উইকেটে থিতু হয়ে ছিলেন। একাই দলকে টেনেছেন প্রায় ১৬ ওভার পর্যন্ত।

কিন্তু, জ্যাকস প্রতিরোধ গড়লেও ফল এনে দিতে পারেননি। নির্ধারিত ওভারে শেষ পর্যন্ত ১৩১ রানে থামে চট্টগ্রাম। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৯ রান করেছেন উইল জ্যাকস। বাকিরা সবাই ব্যর্থ হয়েছেন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৩ রান আসে মৃত্যুঞ্জয়ের ব্যাট থেকে।

এদিন আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেটে ১৮৩ রান তুলেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৮৩ রান করেছেন ফাফ ডু প্লেসি।

সাগরিকায় টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় কুমিল্লা। দলীয় ৪ রানে ওপেনার মাহমুদুল হাসানকে ফিরিয়েছেন চট্টগ্রামের বোলার নাসুম আহমেদ। এরপর জুটি বেঁধে কুমিল্লাকে পথ দেখান লিটন ও ডু প্লেসি। দুজনে মিলে এ জুটিতে স্কোরবোর্ডে তোলেন ৮০ রান।

জমে ওঠা এ জুটিও ভাঙেন নাসুম। ১১তম ওভারে নাসুমের বলে সাব্বির রহমানের হাতে ক্যাচ তুলে দেন লিটন। ৩৪ বল খেলে ৪৭ রানে ভাঙে তাঁর প্রতিরোধ। তাঁর ইনিংসটি সাজানো ছিল পাঁচ বাউন্ডারি এবং এক ছক্কায়।

লিটনের পর ব্যাট করতে নামা ইমরুল বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। বেনি হাওয়েলের ফাঁদে পড়ে এক রানেই বিদায় নেন তিনি। তবে, দুই টপ অর্ডার ফিরলেও উইকেটে থিতু ছিলেন ডু প্লেসি। তাঁর সঙ্গে শেষ দিকে ঝড় তুলেছেন ক্যামরুন ডেলপোর্ট। দুজনের ব্যাটে চড়ে শক্ত পুঁজি পায় কুমিল্লা। ব্যাট হাতে ৮৩ রানের ইনিংস উপহার দেন তিনি। ৫৫ বলে তাঁর ইনিংসটি সাজানো ছিল ৮ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায়। শেষ দিকে ঝড় তোলা ক্যামরুন মাত্র ২৩ বলে খেলেন ৫১ রানের অপরাজিত ইনিংস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স : ২০ ওভারে ১৮৩/৩ (লিটন ৪৭, মাহমুদুল ১, ইমরুল ১, ডু প্লেসি ৮৩, ক্যামরুন ৫১ ; নাসুম ৪-০-২৩-২, হাওয়েল ৪-০-৩১-০, মিরাজ ৩-০-৩০-০, মৃত্যুঞ্জয় ৩-০-৩৪-০, শরিফুল ৪-০-৪৮-০, রেজাউর ২-০-১৭-০)।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স : ২০ ওভারে ১৩১/১০ (জ্যাকস ৬৯, লুইস ৪, সাব্বির ৫, আফিফ ৪, মিরাজ ১০, নাঈম ৮, হাওয়েল ২, মৃত্যুঞ্জয় ১৩, রেজাউর ৬, নাসুম ১, শরিফুল ৪ ; নাহিদুল ৪-০-১৭-৩, মুস্তাফিজ ৩-০-২৬-২, তানভির ৪-০-৩৩-২ ও শহিদুল ৩-০-৩৪-২)।

ফল : ৫২ রানে জয়ী কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

জনপ্রিয়