চড়কাণ্ড; অস্কারে দশ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন উইল স্মিথ

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, এপ্রিল ৯, ২০২২ ১১:১৩:২৮ পূর্বাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
চড়কাণ্ডের জের ধরে হলিউড তারকা উইল স্মিথকে অস্কার গালা এবং অ্যাকাডেমির অন্যান্য অনুষ্ঠানে ১০ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এর ফলে আগামী ১০ বছর আর অস্কার অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারবেন না উইল স্মিথ।

যে প্রতিষ্ঠান অস্কার পুরস্কার ঘোষণা করে থাকে, যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাকাডেমি অব মোশন পিকচার আর্ট অ্যান্ড সায়েন্স একটি বিবৃতিতে বলেছে, ”মি. স্মিথকে (অস্কারের অনুষ্ঠানের) মঞ্চে যে অগ্রহণযোগ্য ও ক্ষতিকর আচরণ করতে দেখা গেছে, তা পুরো অনুষ্ঠানটিকে ম্লান করে ফেলেছে।”

উইল স্মিথ জানিয়েছেন, তিনি অ্যাকাডেমির সিদ্ধান্ত সম্মান করেন এবং মেনে নিয়েছেন।

স্ত্রীর কামানো মাথা নিয়ে রসিকতা করার কারণে ২৭শে মার্চ অস্কার পুরস্কার অনুষ্ঠান চলার সময় কৌতুকাভিনেতা ও উপস্থাপক ক্রিস রককে মঞ্চে উঠে চড় মেরেছিলেন উইল স্মিথ। অ্যালোপেশিয়া রোগের কারণে তিনি মাথার চুল হারিয়েছেন। ওই কাণ্ডের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন উইল স্মিথ এবং অ্যাকাডেমি থেকে পদত্যাগ করেছিলেন।

ওই ঘটনার এক ঘণ্টা পরেই কিং রিচার্ড চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার জয় করেন উইল স্মিথ। ওই চলচ্চিত্রে তিনি টেনিস তারকা ভেনাস ও সেরেনা উইলিয়ামসের পিতার চরিত্রে অভিনয় করেন।

কিন্তু চড়কাণ্ডের ঘটনায় শৃঙ্খলা ভঙ্গের বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে যে কার্যক্রম শুরু করে অ্যাকাডেমি। শুক্রবার ভার্চুয়ালি ওই কমিটি বৈঠক করে উইল স্মিথের বিরুদ্ধে এসব ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।

নিষিদ্ধ হওয়ায় কী ঘটতে পারে?
বিবৃতিতে অ্যাকাডেমি বলেছে, ”অনুষ্ঠানের শিল্পী এবং অতিথিদের সুরক্ষা দেয়া এবং অ্যাকাডেমির ওপর বিশ্বাস পুনঃপ্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে উইল স্মিথের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে।”

অ্যাকাডেমি বলছে, যখন ওই চড়কাণ্ডের ঘটনা ঘটে, তখন ‘বিষয়টিকে ঠিকভাবে দেখা হয়নি ‘ এবং ‘অভূতপূর্ব কোন ঘটনার জন্য প্রস্তুতিও ছিল না’। সেজন্য অ্যাকাডেমি ক্ষমা প্রার্থনা করেছে।

কারও ওপর অস্কার অ্যাকাডেমি নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করলে একাধিক শৃঙ্খলাজনিত ব্যবস্থা নেয়ার ঘটনা ঘটতে পারে।

যেমন তাকে ভবিষ্যতের অস্কার পুরস্কারে মনোনয়ন নাও দেয়া হতে পারে। পুরস্কারের জন্য তাকে অযোগ্য ঘোষণা করা হতে পারে। অথবা তাকে দেয়া সর্বশেষ পুরস্কার ফেরত নিতে পারে।

তবে অ্যাকাডেমির বোর্ড অব গভর্নরের একজন সদস্য হোপি গোল্ডবার্গ বলেছেন, তারা সর্বশেষ অস্কারের পুরস্কারটি ফিরিয়ে নেয়ার কথা ভাবছেন না।

যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, এই নিষেধাজ্ঞার পর উইল স্মিথ কী করতে পারবেন আর কী পারবেন না, তার বিস্তারিত জানায়নি অ্যাকাডেমি।

তবে অ্যাকাডেমির নিয়মকানুনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দুইজন পত্রিকাটিকে বলেছেন, এখনো অস্কার পুরস্কারের জন্য বিবেচিত হবেন মি. স্মিথ। তবে তিনি অস্কার বা অ্যাকাডেমির কোন অনুষ্ঠানে উপস্থিত হতে পারবেন না।

ওই রকম একটি অস্বাভাবিক ঘটনার পরেও সুচারুভাবে অনুষ্ঠান চালিয়ে যাওয়ার জন্য ক্রিস রককে ধন্যবাদ জানিয়েছে কমিটি।

পহেলা এপ্রিল পদত্যাগ করার পর উইল স্মিথ একটি বিবৃতিতে বলেছিলেন, ”চুরানব্বইতম অস্কার একাডেমি পুরস্কার অনুষ্ঠানে আমার আচরণ ছিল মর্মান্তিক, বেদনাদায়ক এবং অমার্জনীয়।”এর আগে অ্যাকাডেমি থেকে পদত্যাগ করেছিলেন উইল স্মিথ।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ম্যাগাজিন ফোর্বস জানিয়েছে, পদত্যাগ করলেও উইল স্মিথকে তার প্রাপ্ত পুরস্কার ফেরত দিতে হবে না। তিনি ভবিষ্যতে পুরস্কারের জন্য পাবেন, অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণও পেতে পারেন।কিন্তু অস্কারের কোন আয়োজনে ভোট দিতে পারবেন না।

অ্যাকাডেমির এই সিদ্ধান্তের বাইরে উইল স্মিথের সঙ্গে প্রকল্প স্থগিত করেছে সনি এবং নেটফিক্স।চড় মারায় উইল স্মিথের বিরুদ্ধে কোন মামলা না করার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন রক।

কী ঘটেছিল সেদিন?
সাতাশে মার্চ ২০২২ তারিখে লস অ্যাঞ্জেলসের ডলবি থিয়েটার হলিউডে চলছিলো ৯৪তম অস্কার পুরস্কার বিতরণীর অনুষ্ঠানমালা।বিশ্বজুড়ে কোটি কোটি মানুষ টেলিভিশনে দেখছিলেন এই অনুষ্ঠানের সরাসরি সম্প্রচার।

অন্য একটি ক্যাটাগরির অস্কার হস্তান্তরের সময় মঞ্চে কৌতুকাভিনেতা ক্রিস রক। পুরস্কার দেয়ার আগে কিছু কৌতুক পরিবেশন পরিবেশন করছিলেন তিনি।

তিনি উইল স্মিথের স্ত্রী অভিনেত্রী জেডা পিঙ্কেটের কামানো মাথার দিকে ইঙ্গিত করে বলে বসলেন, “জেডা, জিআই জেন টু-এর জন্য আমার আর তর সইছে না”।

ক্রিস রক মূলত ১৯৯৭ সালের ছায়াছবি জিআই জেন-এর প্রসঙ্গ টেনেছিলেন, যেখানে অভিনেত্রী ডেমি মুরের চুল খুব ছোট করে ছাঁটা ছিল।

এই রসিকতার পরেই উইল স্মিথ মঞ্চে উঠে যান এবং ক্রিস রককে চড় মেরে বসেন। নিজের আসনে ফিরে আসার সময়ে উইল স্মিথ চিৎকার করে বলছিলেন, “তোমার …(প্রকাশে অযোগ্য গালি) মুখ থেকে আমার স্ত্রীর নাম উচ্চারণ করা বন্ধ রাখো”।

জেডা পিঙ্কেট স্মিথ আগেই তার একটি অসুখের কথা জানিয়েছেন – অ্যালোপেশিয়া নামে এই রোগের কারণে তার চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যা তৈরি হয়েছে।

ঘটনার আকস্মিকতায় ক্রিস রক বিহ্বল হয়ে পড়েন। পরে অবশ্য পরিস্থিতি হালকা করার জন্য তিনি দর্শকদের উদ্দেশ্যে বলেন, “এটি ছিল টেলিভিশনের ইতিহাসের সবচাইতে স্মরণীয় রাত”।

তারপর তিনি সেরা প্রামাণ্যচিত্রের অস্কারটি হস্তান্তর করেন। এ কারণেই সেসময় মঞ্চে উঠেছিলেন তিনি।এর কিছুক্ষণ পর ওই বছরের সেরা অভিনেতার পুরস্কার গ্রহণ করেন উইল স্মিথ।এসময় তিনি তার কিছুক্ষণ পূর্বের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চান।

জীবনে প্রথমবারের মত অস্কার পুরস্কার গ্রহণের সময় দেয়া প্রতিক্রিয়া উইল স্মিথ বলেন, “আমি অ্যাকাডেমির কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করতে চাই। আমি বাকি সব মনোনীতদের কাছেও ক্ষমা প্রার্থনা করতে চাই”।

“শিল্প হচ্ছে জীবনের প্রতিচ্ছবি। আমাকে এখন একজন পাগল পিতার মত দেখাচ্ছে, যেমনটি সবাই বলে রিচার্ড উইলিয়ামসকে নিয়ে। কিন্তু ভালবাসা তোমাকে দিয়ে পাগলামি করিয়ে নেবে”।

কিন্তু পরিস্থিতি সেখানেই থেমে থাকেনি দেখা যাচ্ছে।এর পরের কদিন বিশ্ববাসীর আলোচনার এক নম্বর বিষয়ই ছিল অস্কার মঞ্চের এই চড়কাণ্ড।

আরো পড়ুন : অস্কার অনুষ্ঠানে উপস্থাপককে চড়, ক্ষমা চাইলেন স্মিথ

জনপ্রিয়