চলতি অর্থবছরে ৪১ শতাংশ টাকা ব্যয় করতে পেরেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় : রুমিন ফারহানা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, জুন ৫, ২০২২ ১১:০৮:৩৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
২০২১-২২ অর্থবছরের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থের ৪১ শতাংশ ব্যয় হয়েছে। কী কারণে বরাদ্দ করা অর্থ ব্যয় করা যায়নি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কাছে জানতে চান বিএনপির দলীয় সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা। জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মলেক বলেন, ‘বরাদ্দের ৯০ শতাংশ এই জুনের আগে সমাধান হয়ে যাবে।’

আজ রোববার জাতীয় সংসদে চলা অধিবেশনে গত ৩ জুন গণমাধমে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে রুমিন ফারহানা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কাছে প্রশ্ন করেন। পরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আজ রোববার বিকেলে অধিবেশন শুরু হয়।

রুমিন ফারহানা তাঁর প্রশ্নের অংশে বলেন, ‘বাজেটে যে বরাদ্দ হয়েছে, সেই বরাদ্দ শেষ করতে পারছে না স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং এই বরাদ্দ ব্যয়ের অক্ষমতা ধারাবাহিকভাবে আছে। ২০২১-২০২২ যে চলতি অর্থবছর, সেই অর্থবছরে মাত্র ৪১ শতাংশ বরাদ্দ তারা ব্যয় করতে পেরেছে। অর্থাৎ, যে এক মাস আছে, সেই এক মাসে ৫৯ শতাংশ বরাদ্দ ব্যয় করতে হবে। এখন এ বরাদ্দ যে ব্যয় করতে পারছে না, তার কারণটা কী? এবং এ ব্যাপারে মন্ত্রী কী ভাবছেন?’

জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মলেক বলেন, ‘আমাদের করোনার জন্য কিছু কাজ ব্যহত হয়েছে। যার ফলে আমরা কাঙ্খিত লক্ষে পৌঁছাতে পারেনি। কিন্তু, আমরা যে কাজটি করেছি। যেমন, করোনাকালে যে চিকিৎসা ব্যবস্থা, যে টিকা ব্যবস্থা করেছি। ওই খাতে আমরা যতটুকু খরচ করেছি বা আমাদের শ্রম দিতে হয়েছে, তার ভ্যালু প্রায় ৪০ হাজার কোটি টাকা। আমাদের যে নয় হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ রয়েছে, আপনার হিসেবে (রুমিন) আমরা ৪০ শতাংশ খরচ করতে পেরেছি। আপনাকে আশ্বস্ত করতে পারি, জুন ক্লোজিংয়ের মধ্যে আমাদের ৯০ শতাংশের বেশি খরচ হয়ে যাবে। এটা অর্জন হয়ে যাবে। কারণ, এখনও অনেক বিল আছে, যেগেুলো পেমেন্ট হয়নি বা মাল এখনও পৌঁছেনি। যার বিলগুলো এখনও দেওয়া হয়নি।’

আরও পড়ুন : এক সপ্তাহের মধ্যে নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্তি : শিক্ষামন্ত্রী

জনপ্রিয়