চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল ম্যাচ চলাকালে মাঠে অর্ধনগ্ন নারী

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, জুন ২, ২০১৯ ৮:৪৩:২৪ অপরাহ্ণ
Kinsi Volonaski
সেন্টারের দিকে দৌড়ে যাচ্ছেন কিনসি ভোলানস্কি

অনলাইন ডেস্ক:
শনিবার স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানো স্টেডিয়ামে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল ম্যাচ চলছিল। খেলা হচ্ছিল দুই ইংলিশ ক্লাব লিভারপুল ও টটেনহ্যাম হটস্পারের মধ্যে। ম্যাচ শুরু হওয়ার ১৮ মিনিটের মাথায় মোহাম্মদ সালাহর দেওয়া এক গোলে এগিয়ে গেছে লিভারপুল।  বল তখন মাঝ মাঠে। হঠাৎ করেই দেখা গেল অর্ধ-নগ্ন এ নারী সেন্টারের দিকে দৌড়ে যাচ্ছেন। তার পরনে কালো রঙের সুইমিং কস্টিউম।

স্বল্প-বসনা এক নারী হঠাৎ করে মাঠের ভেতরে ঢুকে পড়লে কিছুক্ষণের জন্যে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল খেলাটি থেমে গিয়েছিল। ফুটবলাররা তখন খেলা বন্ধ করে দিয়ে ওই নারীর দিকে তাকিয়ে রইলেন। আর নিরাপত্তা রক্ষীরাও ওই নারীকে থামাতে তখন ছুটে আসলেন মাঠের ভেতরে।

খেলোয়াড়রা বল ফেলে বিস্মিত হয়ে যান। খেলা থামিয়ে দেন রেফারি। সাথে সাথেই নিরাপত্তা রক্ষীরা এসে তাকে জড়িয়ে ধরে অনেকটা জোর করেই নিয়ে যান মাঠের বাইরে।

Kinsi Volonaski
কিনসি ভোলানস্কিকে মাঠের বাইরে নিয়ে যাচ্ছেন নিরাপত্তা রক্ষীরা।

চলমান বার্তার অন্যান্য খবর>>

না ফেরার দেশে চলে গেলেন মমতাজউদদীন

গাজীপুরে ১২ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

পাপের গ্লানি দূর করে ফিতরা

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে বলা হচ্ছে, ওই নারী একজন মডেল। তার নাম কিনসি ভোলানস্কি। ইন্সটাগ্রামে তার অনুসারীর সংখ্যা তিন লাখেরও বেশি। সেখানে তিনি প্রায়শই স্বল্প কাপড় পরিহিত ছবি পোস্ট করে থাকেন। বলা হচ্ছে, ইউটিউব-ভিত্তিক একটি রুশ পর্ণ ওয়েবসাইটের প্রচারণা চালাতেই তিনি অর্ধ-নগ্ন হয়ে খেলা চলাকালে মাঠের ভেতরে ঢুকে পড়েছিলেন।

সংবাদ মাধ্যমে আরো বলা হচ্ছে যে, তিনি ‘ভাইটালি আনসেন্সর্ড’ নামের এক্স রেটেড ওয়েবসাইটের রুশ-আমেরিকান প্রতিষ্ঠাতা ভাইটালি জদরভেতস্কির একজন বান্ধবী। মি.জদরভেতস্কিও একজন পর্ন অভিনেতা ছিলেন। তার কালো সুইমিং কস্টিউমে সাদা রঙ দিয়ে ওই ওয়েবসাইটের নাম লেখা ছিল।

জদরভেতস্কিও এর আগে ২০১৪ সালে বিশ্বকাপের ফাইনালের সময় মাঠে ঢুকে পড়েছিলেন। সেসময় তার বুকে লেখা ছিল ‘ন্যাচরাল বর্ন প্র্যাঙ্কস্টার।’ ভাইটালি আনসেন্সর্ড একটি অ্যাডাল্ট ইউটিউব চ্যানেল। ওই চ্যানেলটি দেখা হয়েছে ১৬০ কোটি বার। এই চ্যানেলের অনুসারীও প্রায় এক কোটি।

এই ঘটনার পরপরই জেদরভেতস্কি ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট দেন যেখানে তিনি লিখেন, “আমার বেবি গার্ল চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনালে দাগ ফেলে দিয়েছে, তোমাকে নিয়ে আমার গর্ব, তুমি আমার সবকিছু।”

কিনসি ভোলানস্কিকেও পরে ছেড়ে দেওয়া হলে তিনি সোশাল মিডিয়াতে তার এই মাঠে ঢুকে পড়ার ব্যাখ্যা দিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, “জীবন হচ্ছে যাপন করার জন্যে, আপনি এমন কিছু করুন যা আপনি চিরজীবন মনে রাখবেন।” এই পোস্টের সাথে তিনি তার মঠে ঢুকে পড়ার একটি ভিডিও-ও আপলোড করেছেন। সূত্র: বিবিসি বাংলা।

আরও পড়ুন : হেরে গিয়ে পিচকে দায়ী করলো শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক

Leave a Reply

Your email address will not be published.

জনপ্রিয়