জনসমাগম কাকে বলে বিএনপিকে বোঝানো হবে  : ওবায়দুল কাদের

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শুক্রবার, অক্টোবর ২৮, ২০২২ ৫:০০:৪৬ অপরাহ্ণ
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের

চলমান বার্তা ডেস্ক:
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জনসমাগম কাকে বলে, তা আগামীকাল (শনিবার) থেকে বিএনপিকে বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) নিজ বাসভবনে ব্রিফিংকালে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

সরকারের কাঁপাকাঁপি শুরু হয়েছে— বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকারের কাঁপাকাঁপির কী আছে? কোনো সমাবেশে দশ লাখ লোকের টার্গেট করে এক লাখও হয়নি, কোথাও পাঁচ লাখ টার্গেট করে পঞ্চাশ হাজারও হয়নি। এটাই বিএনপির সমাবেশের আসল চেহারা।

বিএনপিকে চ্যালেঞ্জ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগরীতে ওয়ার্ড ও থানার সম্মেলনে কত হাজার লোক হয়েছে, তা দেখুন। পত্রপত্রিকা ও মিডিয়াতে প্রচারিত হয়েছে সেগুলো।

‘খেলা হবে’ প্রসঙ্গে বিভিন্ন সমাবেশে বিএনপির দেওয়া হুঁশিয়ারি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমি বলেছি-যারা ১৭ কোটি মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে চায় তাদের বিরুদ্ধে খেলা হবে, যারা হাওয়া ভবন, লুটপাট, অর্থপাচার, দুর্নীতি, বিদ্যুৎবিহীন খাম্বা দিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে খেলা হবে। সোয়া এক কোটি ভুয়া ভোটার সৃষ্টিকারী, ভোট চুরি আর জালিয়াতির বিরুদ্ধে খেলা হবে। দেশের উন্নয়নবিরোধী, সাম্প্রদায়িক অপশক্তির লালনকারী, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় যারা বিশ্বাস করে না, তাদের বিরুদ্ধে খেলা হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, দেশে সাংবিধানিক নির্বাচন কমিশন আছে। এই কমিশনের অধীনে যথাসময়ে আগামী নির্বাচন হবে। নির্বাচন কমিশনকে সরকার শুধু সহায়তা করবে। কোনো ব্যক্তি বা দলের খুশিমতো নির্বাচন হবে না। পৃথিবীর অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও নির্বাচন হবে।

পরিবহন ধর্মঘট নিয়ে মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, পরিবহন মালিক-শ্রমিক নির্দিষ্ট কোনো দলের না। সব দলের লোকই এখানে আছে। পরিবহন মালিক সংগঠনের সভাপতি আওয়ামী লীগের, সাধারণ সম্পাদক বাসদের, বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আছেন বিএনপির বড় নেতা শিমুল বিশ্বাস। তাকেই জিজ্ঞেস করুন-কেন ধর্মঘট করেছে?

বিএনপি নেতাদেরকে মালিক সমিতির সঙ্গে কথা বলার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, সব দলের সমন্বয়ে মালিক সমিতি হয়েছে। এখানে প্রেসিডেন্ট জাতীয় পার্টির, জেনারেল সেক্রেটারি আওয়ামী লীগ সমর্থিত, অন্যান্য সব দলের প্রতিনিধিও রয়েছে।

আরও পড়ুন : সরকার সংকট মোকাবিলায় চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে : কাদের

জনপ্রিয়