জাতির পিতাকে হত্যার পর মানবাধিকার লঙ্ঘনের সংস্কৃতি চালু হয় : প্রধানমন্ত্রী

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শুক্রবার, নভেম্বর ২৫, ২০২২ ৫:১৬:৩৯ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক:
১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পর দেশে মানবাধিকার লঙ্ঘনের সংস্কৃতি চালু হয় বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) বিকেলে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) পঞ্চম জাতীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারের হত্যার পর অবৈধভাবে হত্যা-ক্যু ও ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ক্ষমতার পালাবদল শুরু হয়। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান স্বাধীনতা বিরোধীদের রাজনীতি করার সুযোগ দিয়েছিল। পাকিস্তানি হানাদারদের দোসরদের ক্ষমতায় বসিয়েছিল। এ ছাড়া বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার বন্ধে আইন করেছিল।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর খুনিকে যুক্তরাষ্ট্র লালন-পালন করলেও এখন মানবাধিকার নিয়ে কোনো রা নেই, যা দেখলে অবাক লাগে।

এসময় প্রধানমন্ত্রী জানান, বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে বিচার করা হবে।

এর আগে, বিকেল তিনটায় সম্মেলনে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর বেলুন ও পতাকা উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন।

আরও পড়ুন : স্বাচিপের জাতীয় সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

জনপ্রিয়