জামিন পেলেন শিক্ষক হৃদয় চন্দ্র

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, এপ্রিল ১০, ২০২২ ১:৪৯:২৮ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
শ্রেণিকক্ষে ধর্ম অবমাননার অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়া মুন্সীগঞ্জের শিক্ষক হৃদয় চন্দ্র মণ্ডলের জামিন মঞ্জুর হয়েছে। অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোতাহারাত আক্তার ভূঁইয়ার আদালত আজ রোববার দুপুর সোয়া ১টার দিকে শুনানি শেষে হৃদয় চন্দ্র মণ্ডলের জামিন মঞ্জুর করেন। পাঁচ হাজার টাকা বন্ডে তাঁকে জামিন দেন বিচারক। বিনোদপুর রামকুমার উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষক হৃদয় মণ্ডলের আইনজীবী শাহিন মোহাম্মদ আমানুল্লাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গত ২৩ মার্চ ও ২৮ মার্চ আদালতে হৃদয় মণ্ডলের জামিন চাওয়া হয়। সে সময় আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন।

এর আগে অ্যাডভোকেট শাহিন মোহাম্মদ আমানুল্লাহ বলেন, ‘২২ মার্চ হৃদয় চন্দ্র মণ্ডলকে গ্রেপ্তারের পরদিন আদালতে ওঠানো হয়। পরদিন আদালতে শুনানি হয়। সেদিন জামিন চাইলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করেন। পরে আবারও ২৮ তারিখ জামিন চাওয়া হলে আদালত তাঁকে জামিন দেননি। সেদিন সংক্ষুব্ধ হয়ে ফৌজদারি ভিট মামলা দায়ের করি।’

মামলা ও আদালত সূত্রে জানা যায়, গত ২০ মার্চ বিনোদপুর রামকুমার উচ্চ বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণির মানবিক শাখার ক্লাস নেওয়ার সময় হৃদয় চন্দ্র মণ্ডল ‘ধর্ম অবমাননা’ করেছেন বলে অভিযোগ আনা হয়। এ ঘটনায় ২২ মার্চ মামলা করেন স্কুলের অফিস সহকারী মো. আসাদ। সেদিনই তাঁকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়। ২৩ মার্চ তাঁকে আদালতে হাজির করলে আদালত হৃদয় মণ্ডলকে জেল হাজতে পাঠান।

সেদিন মামলার দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান বলেন, ‘মামলার পরিপ্রেক্ষিতেই ওই শিক্ষকে গ্রেপ্তার করে সম্মানের সঙ্গে আদালতে পাঠানো হয়। পরে আদালত তাঁকে জেল হাজতে পাঠান।’

এদিকে, গত বুধবার এক বিবৃতিতে বিজ্ঞান শিক্ষক হৃদয় চন্দ্র মণ্ডলের নিঃশর্ত মুক্তি চেয়েছেন দেশের ১৮ বিশিষ্ট নাগরিক।

বিবৃতিতে তাঁরা বলেন, আমরা হৃদয় চন্দ্র মণ্ডলের নিঃর্শত মুক্তি দাবি করছি। আর যে কিশোর ছাত্ররা মৌলবাদী চিন্তা দ্বারা প্রভাবিত হয়ে বিজ্ঞান শিক্ষক হৃদয় মণ্ডলকে অপমান করে পুলিশে সোপর্দ করেছে, তাঁদের মধ্যে মানবিক চেতনার বিকাশ ঘটানোর জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।

আরো পড়ুন : পুলিশের কাছে ন্যায়বিচার পাওয়ার আত্মবিশ্বাস যেন থাকে : প্রধানমন্ত্রী

জনপ্রিয়