ঝিকরগাছায় নলকূপের লাইসেন্স ফিরে পেতে কৃষকদের মানববন্ধন

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, জানুয়ারি ৩০, ২০২২ ১২:১৬:৫৪ অপরাহ্ণ

হাফিজুর শেখ ঝিকরগাছা স্টাফ রিপোর্টার যশোরঃ
যশোর সদর উপজেলার ছোট মেঘলা ও ঝিকরগাছা মল্লিকপুর মাঠের গভীর নলকূপের স্থগিত লাইসেন্স ফিরে পেতে মানববন্ধন করেছে যশোরের সেই ছোট মেঘলা গ্রামের শত বিঘা জমির কৃষকরা।

গতকাল শনিবার ২৯ জানুয়ারী বিকাল ৪ টার দিকে ঐ মাঠে কৃষক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।গভীর নলকূপের স্থপনে মামলায় সেচ ব্যাবস্থা বন্ধ থাকায় ঘন্টাব্যপি এ মানববন্ধনে ভুক্তভোগী এলাকার ২০০ কৃষক কৃষিণীরা অংশ নেন। মামলায় নলকুপের স্থগিত লাইসেন্স তিন বছর বন্ধ যশোরের শত বিঘা আবাদ জমি।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন মল্লিকপুর গ্রামের ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক। ছোট মেঘলা গ্রামের ইউপি সদস্য আলতাফ মাহমুদ। বর্গাচাষি আঃ গনি, রবিউল ইসলাম, আঃ রাজ্জাক, কৃষক ফরিদ উদ্দিন, সাফিয়া বেগম, আঃ রহিম ভুট্টো।

ভুট্টো বলেন, একটি ষড়যন্ত্র মামলায় গভীর নলকূপের লাইসেন্স স্থগিত হওয়ায় এই ১০০ জমি তিন বছর বরো ধান আবাদ বন্ধ রয়েছে। মামলার বাদি সাইফুজ্জামান মামলাটি আপোষনামা করও তা নিয়ে টালবাহানা করছেন।

তিনি আরো বলেন, এ মাঠের শতাধিক বিঘা জমিতে বরোধান চাষের জন্য আমরা ২০১৭ সালে একটি গভীর নলকূপ বসানোর আবেদন করি। উপজেলা সেচ কমিটি যাচাই বাছাই করে ২০১৯ লাইসেন্স প্রদান করেন।এতে বাধ সাধেন ঝিকরগাছার মল্লিকপুর গ্রামের সাইফুজ্জামান। অথচ তার গভীর নলকূপটি রয়েছে ২ হাজার ফুট দূরে ও নিচু যায়গায়।

ভুট্টো বলেন, এলাকা বাসির দাবির মুখে গত বছর ফেব্রুয়ারী মাসে সাইফুজ্জামান ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদে আপোষনামা কেরেদেন মামলা তুলে নেবার জন্য। পরে সে সিদ্ধান্ত নিয়ে টালবাহানা শুরু করেন। পরে বিষয়টি নিয়ে ঝিকরগাছা থানায় সরাসরি জানিয়ে ছিলেন সাইফুজ্জামান। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে সে হাজির নাহয়ে ছলচাতুরী শুরু করেন।

কৃষাণী সাফিয়া বেগম বলেন, আমার তির বিঘা জমির সব সম্বল এ মাঠে। কিন্তু গভীর নলকূপ বন্ধ থাকায় বরোধানের বড় আবাদ করতে পরছিনা। একজন বিধবা হিসাবে সন্তানদের অনেক কষ্টে দিন পার করছি।আমরা এর সঠিক ব্যবস্থা সমাধান চাই। যেন আমরা আমকদের এ মাঠে বরোধানের চাষ করতে পারি সরকারের কাছে আমাদের এই দাবি করেছেন কৃষকরা।

আরো পড়ুন : যশোরে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে করোনা

জনপ্রিয়