দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে জনজীবন দুর্বিষহ : মির্জা ফখরুল

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, মার্চ ১৪, ২০২২ ৮:৪১:৩৬ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির ফলে মানুষের জীবন দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে, আর সরকার এসব অস্বীকার করছে। তাঁদের মন্ত্রীরা এ বিষয়ে হেসে হেসে কথা বলছেন।’

আজ সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপি মহাসচিব এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘সরকারের মন্ত্রীরা হেসে হেসে বলছেন—আরে দাম যেমন বেড়েছে, মানুষের ক্রয়ক্ষমতাও তো বেড়েছে। কারা এরা? এরা জিডিপির শুভঙ্করের ফাঁকি দেয়। অবলীলায় তাঁরা মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে, ধোঁকা দিচ্ছে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আজকে মানবাধিকার এমন পর্যায়ে গেছে, যেখানে মানুষের কথা বলার কোনো স্বাধীনতা নেই। ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনের মধ্যে আবার নতুন নীতিমালা করা হয়েছে, এই নীতিমালা হলে আমরা মোবাইলে যে কথা বলি, সে কথাও নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে। আমাদের প্রাইভেসি বলতে কিছু থাকবে না।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এই জাতিকে রক্ষা করতে হলে, ১৯৭১ সালে যে আশা-আকাঙ্ক্ষা নিয়ে অগণিত মানুষ যাঁরা প্রাণ দিয়েছেন, তাঁদের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হলে রাজনৈতিক দলগুলোকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে। গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে এই ভয়াবহ ফ্যাসিস্ট দানবীয় সরকারকে পরাজিত করে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে।’

নির্বাচন কমিশন প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, ‌‘অতীতের মতো আরেকটি নির্বাচন কীভাবে করা যায়, সে জন্য তারা নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করেছে। এবার মানুষ আর সেটা শুনবে না, মানবে না। মানুষ রুখে দাঁড়াচ্ছে রুখে দাঁড়াবে ইনশাআল্লাহ। আমরা বিশ্বাস করি, বাংলাদেশের মানুষ কখনও পরাজিত হয়নি, দেশের মানুষ গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে বুক ফুলে দাঁড়াবে।’

বিরোধীদলীয় সাবেক চিফ হুইপ বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদীন ফারুকের সঞ্চালনায় এবং আয়োজক সংগঠনের সভাপতি আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহর সভাপতিত্বে স্মরণসভায় অন্যদের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আনোয়ার উল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুস সালাম, আমান উল্লাহ আমান, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, শামীমুর রহমান শামীম, নিপুণ রায় চৌধুরী প্রমুখ বক্তৃতা দেন।

আরো পড়ুন : নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ২৮ মার্চ হরতালের ডাক বাম জোটের

জনপ্রিয়