নাটোরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ জন নিহত

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, মে ৭, ২০২২ ৫:৩৩:০৭ অপরাহ্ণ

নাটোর জেলা প্রতিনিধি:
নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ভাই-বোনসহ সাত জন নিহত হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে অন্তত ১২ জন। উপজেলার বনপাড়া এলাকায় আজ শনিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে দুজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। এর মধ্যে একজন নাটোর সদর উপজেলার কাউছার আলী (১৬) এবং অপরজন তার বোন সাদিয়া (১২)। এ ছাড়া নিহত অন্যদের পরিচয় জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

হাইওয়ে পুলিশ জানায়, আজ শনিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার বনপাড়া এলাকায় ঢাকা থেকে রাজশাহীগামী ন্যাশনাল ট্রাভেলসের একটি বাসের সঙ্গে বিপরীতগামী সিয়াম পরিবহণের বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে দুটি বাসের অন্তত ছয় জন নিহত হয়। এ দুর্ঘটনার পরপর ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ হতাহতদের উদ্ধার করে। এর মধ্যে গুরুতর আহত নয় জনকে স্থানীয় ক্লিনিক ও জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বনপাড়ার একটি ক্লিনিকে মারা যান আরও এক নারী।

খবর পেয়ে জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ, পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা ও বগুড়া হাইওয়ে পুলিশের এসপি মুনসী শাহাবুদ্দিন ঘটনাস্থলে যান।

জেলা প্রশাসক জানান, হতাহতদের পরিচয় শনাক্তসহ সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হবে।

পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, ন্যাশনাল ট্রাভেলসের চালকের অতি আত্মবিশ্বাসের কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। সোজা সড়কে এমন দুর্ঘটনা ঘটার কথা নয় বলে জানান তিনি।

দুর্ঘটনার সঙ্গে সঙ্গেই ফায়ার সার্ভিসে খবর দিয়ে উদ্ধারে ছুটে যান আশপাশের লোকজন। বেঁচে যাওয়া যাত্রী ও স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ন্যাশনাল ট্রাভেলসের অতিরিক্ত গতি ও বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালানোর কারণে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। দুর্ঘটনায় বাসের বাঁ-পাশের যাত্রীরা হতাহত হলেও অক্ষত ও সামান্য আহত হয়েছে ডান পাশের যাত্রীরা।

আরও পড়ুন : এপ্রিলে চার শতাধিক দুর্ঘটনা; নিহত ৫৪৩

জনপ্রিয়