পুতিন; পিটার দ্য গ্রেট

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শুক্রবার, জুন ১০, ২০২২ ৫:২৬:০০ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক:
রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দেশটির সাবেক শাসক ও জার পিটার দ্য গ্রেটের প্রতি সম্মান জানিয়েছেন। পিটার দ্য গ্রেটের ৩৫০ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক প্রদর্শনীতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বৃহস্পতিবার নিজেকে পিটারের সঙ্গে তুলনা করেন পুতিন। খবর রয়টার্সের।

পিটারের উদ্দেশ্যে করা প্রদর্শনীতে পুতিন বলেন, ‘পিটার দ্য গ্রেট প্রায় ২১ বছর ধরে উত্তরাঞ্চলের মহান যুদ্ধে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। কেউ কেউ ভাবতে পারেন তিনি সুইডেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছিলেন এবং পরবর্তীতে তিনি তাদের (সুইডেনের) কাছ থেকে কিছু ছিনিয়ে নেন। তবে, বাস্তবে তিনি কিছু নেননি, বরং তিনি কিছু ফিরিয়ে এনেছেন (যেটি রাশিয়ার ছিল)।’

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধের ১০৬তম দিনে তিনি পিটার দ্য গ্রেটের অভিযানের সঙ্গে তুলনা করে পুতিন বলেন, ‘আপাতদৃষ্টিতে মনে হচ্ছে, আমাদের ওপর ফিরিয়ে আনার (যেটি রাশিয়ার ছিল) এবং শক্তিশালী করার (দেশকে) দায়িত্ব অর্পিত হয়েছে। আমরা যদি ধরে নেই, এই মৌলিক মূল্যবোধ আমাদের অস্তিত্বকে সংজ্ঞায়িত করে, তাহলে আমরা আগামীতে যেসব সমস্যার মুখোমুখি হব, সেগুলো নিশ্চিতভাবেই সমাধান করতে পারব।’

এক অর্থে পুতিন বলতে চেয়েছেন, পিটার দ্য গ্রেট যেভাবে রাশিয়ার ভূখণ্ড রাশিয়ার কাছে ফিরিয়ে এনেছেন, একইভাবে তিনিও রাশিয়ার ভূখণ্ড রাশিয়ার কাছেই ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চালাচ্ছেন।

২০১৪ সালে ইউক্রেনের কাছ থেকে ক্রিমিয়ার দখল নেয় রাশিয়া। এ মুহূর্তে দনবাস অঞ্চলের দনেৎস্ক ও লুহানস্কের দখল নিয়ে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের ওপর আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে রুশ বাহিনী।

এদিকে, পুতিনের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা মিখাইলো পোদোলিয়াক জানান, এটি অন্য দেশের ভূখণ্ড চুরি করার অপরাধকে বৈধ করার প্রচেষ্টা।

একটি অনলাইন পোস্টে পোদোলিয়াক বলেন, ‘পশ্চিমের উচিৎ একটি পরিষ্কার সীমারেখা টানা, যাতে ক্রেমলিন বুঝতে পারে তাদের প্রতিটি রক্তাক্ত উদ্যোগের জন্য কত বড় মূল্য চুকাতে হবে। আমরা জোর করে দখল করা ভূখণ্ডগুলো সহিংসতার সঙ্গে মুক্ত করে আনবো।’

আরও পড়ুন : সেই নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে দিল্লি পুলিশের মামলা

জনপ্রিয়