পরমাণু কর্মসূচি বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি কিমের

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৬, ২০২২ ৬:১২:১৫ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন দেশের পরমাণু কর্মসূচি বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। গতকাল সোমবার রাতে এক সামরিক মহড়ায় এমন বেপরোয়া মন্তব্য করেছেন কিম। খবর বিবিসির।

উত্তর কোরিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত ওই মহড়ায় নিষিদ্ধ ঘোষিত আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিএমবি) প্রদর্শণ করা হয়। ২০১৭ সালের পর গত মার্চে উত্তর কোরিয়া তাদের সবচেয়ে বড় আইসিএমবি পরীক্ষা চালায়। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এই পরীক্ষার তীব্র নিন্দা জানায়।

ওই পরীক্ষার পর উত্তর কোরিয়ার ওপর বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম আইসিএমবি দিয়ে উত্তর কোরিয়া এখন যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ডের যেকোনও স্থানে আঘাত হানতে পারবে।

তবে নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও অস্ত্র সক্ষমতা বাড়ানো থেকে বিরত না থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন কিম জং উন। তিনি বলেন, ‘আমরা দ্রুত গতিতে পারমাণবিক ক্ষমতা জোরদার ও বিকাশের জন্য পদক্ষেপ নিতে থাকব।’ তিনি আরও বলেন তাদের পারমাণবিক বাহিনী যেকোনও সময়ে অনুশীলনের জন্য অবশ্যই প্রস্তুত থাকবে।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ জানিয়েছে, কিম জং উন বলেছেন তাঁর দেশের পারমাণবিক সক্ষমতা মূলত যুদ্ধ এড়ানোর সামগ্রি। তবে তা অন্য কাজেও ব্যবহার হতে পারে। এর মধ্য দিয়ে তিনি মূলত বোঝাতে চেয়েছেন আক্রান্ত হলে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করবে উত্তর কোরিয়া। আগেও এ ধরনের মন্তব্য করেছেন তিনি।

রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে প্রচারিত মহড়ার ছবিতে হাসোং-১৭ ক্ষেপণাস্ত্র দেখা যায়। বিশালাকার এই ক্ষেপণাস্ত্র মার্চে প্রথম পরীক্ষা চালানোর দাবি করে উত্তর কোরিয়া। তবে এই পরীক্ষার সফলতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন দক্ষিণ কোরিয়ার বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুন : পারমাণবিক যুদ্ধের ঝুঁকি বাড়ছে : রাশিয়ার সতর্কবার্তা

সর্বশেষ

জনপ্রিয়