পাকিস্তানের পাশে থাকবে চীন

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ৩, ২০২২ ১০:৫৪:৫৯ পূর্বাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক:
চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং (ডানে) ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ। ছবি : সংগৃহীত

অর্থনৈতিক সংকট পার করছে পাকিস্তান। দেশটির অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা আনতে পাশে থাকার কথা বলেছে চীন। বুধবার চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেছেন, পাকিস্তানকে সমর্থন দিয়ে যাবে চীন। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের বেইজিং সফরের সময় চীনের প্রেসিডেন্ট এ মন্তব্য করেছেন বলে দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে তুলে ধরা হয়। খবর রয়টার্স ও আল-জাজিরার।

পাকিস্তান দীর্ঘদিন ধরেই রিজার্ভ-সংকটে রয়েছে। ফলে বৈদেশিক দেনা মেটাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাদের। এর মধ্যেই গত গ্রীষ্মে দেশটিতে ব্যাপক বন্যা দেখা দেয়। এতে ৩০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে দেশটি।

সম্প্রতি চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে পাকিস্তানের ন্যাশনাল ব্যাংক সমঝোতা চুক্তি করেছে। এতে দুই দেশের মধ্যে আন্তসীমান্ত লেনদেন সহজ হবে। চীনের গ্রেট হল অব দ্য পিপলে শাহবাজ শরিফের সঙ্গে এক বৈঠকে শি জিনপিং বলেন, অর্থনৈতিক করিডোর নির্মাণে চীন ও পাকিস্তান কার্যকরভাবে সামনে এগিয়ে যাবে। এর মধ্যে রয়েছে গোয়াদরে সমুদ্রবন্দর নির্মাণের কাজও

বর্তমানে পাকিস্তানের অবকাঠামো ও খনিতে খননকাজে যুক্ত রয়েছে চীন। এসব কিছু ৬৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের চীন-পাকিস্তান করিডরের আওতাধীন।

শি জিনপিং আরও বলেন, দুই দেশ মিলে পাকিস্তানের রেলওয়ে হালনাদা প্রকল্প ও করাচি সার্কুলার রেলওয়ে প্রকল্পের কাজ করবে। এ ছাড়া দ্রুতগতির রেল স্থাপনে প্রযুক্তি স্থানান্তর করবে চীন। এসবই হবে সির বেল্ট অ্যান্ড রোড উদ্যোগের অধীন।

চীনের প্রেসিডেন্ট বলেন, পাকিস্তানের উন্নতমানের কৃষিপণ্য রপ্তানিকে স্বাগত জানাবে তাঁর দেশ। এ ছাড়া দেশটির সঙ্গে ডিজিটাল অর্থনীতি, ই-কমার্স ও নতুন জ্বালানি উৎস নিয়েও সহযোগিতা জোরদার করছে চীন।

গত অক্টোবরে সি তৃতীয় মেয়াদে চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির নেতা নির্বাচিত হওয়ার পর তাঁর সঙ্গে যাঁরা সাক্ষাৎ করেছেন, তাঁদের মধ্যে অন্যতম নেতা পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ।

আরও পড়ুন : পাল্টাপাল্টি ১৩টি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া

জনপ্রিয়