পাকিস্তানের মন্ত্রীসভার ব্যাপক রদবদল

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শুক্রবার, এপ্রিল ১৯, ২০১৯ ১০:৩৯:৪৩ অপরাহ্ণ
Imran Khan
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ছবি : রয়টার্স

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সরকার গঠনের ৮ মাসের মাথায় মন্ত্রিসভার ১০ পদে রদবদল ঘটিয়েছেন। দীর্ঘ দিনের বিশ্বস্ত আসাদ উমরকে সরিয়েছেন অর্থমন্ত্রীর পদ থেকে। বর্তমানে মুদ্রাস্ফীতি গত ৫ বছরের তুলনায় সর্বোচ্চ পর্যায়ে এবং পাকিস্তানির রুপির দাম গিয়ে ঠেকেছে তলানিতে।

নতুন অর্থমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থ উপদেষ্টা আব্দুল হাফিজ শাইখ। তিনি ২০১০ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত বর্তমান বিরোধী দল পাকিস্তান পিপলস পার্টির আমলে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।

বৃহস্পতিবার অর্থ মন্ত্রণালয়সহ মন্ত্রিসভার ১০ পদে রদবদলের ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এরই মধ্যে আজ শুক্রবার তিনি জানালেন, আরো পরিবর্তন আসতে পারে। দরকার পড়লে যে কাউকে দায়িত্ব থেকে সরাতে দ্বিধা করা হবে না।

ইমরান খান বলেন, ‘আমি আমার মন্ত্রীদেরকে বলতে চাই, যাকেই দেশের জন্য অকেজো মনে হবে, তাকেই সরিয়ে কাজের লোককে দায়িত্ব দেওয়া হবে।’

দেশটির জাতীয় ক্রিকেট দলের বিশ্বকাপজয়ী সাবেক অধিনায়ক বলেন, ক্যাপ্টেনের যেমন একটাই উদ্দেশ্য থাকে দলকে জেতানো। তেমনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আমার একটাই লক্ষ্য, জনগণকে জেতানো, তাদের জীবনমানের উন্নয়ন করা। এবং এই কারণে আমি ব্যাটিং অর্ডারে পরিবর্তন এনেছি।’

পাকিস্তানের অর্থনৈতিক সংকট দিন দিন ঘণীভূত হওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে দাবি করছে সরকার। ১২ মাসে অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি হার সাড়ে ৩ থেকে ৪ শতাংশ হতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। জুন নাগাদ যার লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয় ৬.২ শতাংশ। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ধারণা, আরো ভয়াবহ। সংস্থাটি বলছে, পাকিস্তানের প্রবৃদ্ধি এ বছর দাঁড়াতে পারে ২.৯ শতাংশে এবং আগামী বছর তা ২.৮ শতাংশে নেমে যেতে পারে।

এ বছর আইএমএফের সঙ্গে ঋণের ১৩তম দায়মুক্তি চুক্তি স্বাক্ষর করতে যাচ্ছে পাকিস্তান। এই চুক্তির দরকষাকষিতে পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী আসাদ উমর ব্যাপকভাবে সমালোচিত হন।

আরও পড়ুন: বিক্ষোভের মুখে মালি সরকারের পদত্যাগ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

জনপ্রিয়