পীরগঞ্জে সেনা সদস্যের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকার অনশন

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, এপ্রিল ১২, ২০২২ ৫:৪০:৪৬ অপরাহ্ণ

ফাইজুল ইসলাম, পীরগঞ্জ,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:
ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে সেলিম রানা সজীব নামে এক সেনা সদস্যের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে ২দিন ধরে অনশন করছেন জেসমিন নামে এক কিশোরী।

জেসমিন ঠাকুরগাঁও জেলার হরিপুর উপজেলার হরিপুর সদর ইউনিয়নের শিয়াল ঝুড়ি গ্রামের মৃত জহুরুল হকের মেয়ে।

সেনা সদস্য সজিব পীরগঞ্জ উপজেলার বৈরচুনা ইউনিয়নের আজলাবাজ গ্রামের বাবুল হোসেনের ছেলে। জেসমিন বিয়ের দাবিতে দুইদিন যাবত অনশনে আছেন তার প্রেমিক সেনাবাহিনীর সদস্য সেলিম রানা সজিবের বাড়িতে।

সরেজমিন গেলে তরুণী জানান, গত প্রায় ৩ বছর যাবত সজিবের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। প্রেমের সুযোগ নিয়ে সেলিম রানা সজিব বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রেমিকার নিজ বাড়িতে ও দেশের বিভিন্ন স্থানে আবাসিক হোটেলে নিয়ে একাধিকবার ইচ্ছার বিরুদ্ধে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করে। গত শনিবার মোবাইল ফোনে সেলিম রানা সজিবকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে তাকে সজিবের বাড়িতে চলে আসার কথা বলে।

রবিবার সকাল সাতটায় প্রেমিকা বিয়ের দাবিতে সেনাবাহিনীর সদস্য সচিবের ঘরে এসে উঠেন। এ সময় সজিবের মা ও বাবা তাকে জোরপূর্বক ঘর থেকে বের করে দিয়ে ঘরের দরজায় তালা লাগিয়ে সবাই সটকে পড়েন। নিরুপায় হয়ে সেনাবাহিনীর সদস্য সজিবের দাদার বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নিয়ে যেখানে অনশনে আছেন প্রেমিকা।

এ বিষয়ে সজীবের মা, বাবা কোনো কথা বলতে রাজি হননি সেলিম রানা সজীবকে একাধিকবার ফোন দিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে পীরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, এ ব্যাপারে থানায় কোন অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে তদন্তসাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরো পড়ুন : পীরগঞ্জে বজ্রপাতে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

জনপ্রিয়