পূর্ব ইউক্রেনের স্কুলে রাশিয়ার বোমা হামলা; ৬০ জনের মৃত্যুর আশংকা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, মে ৮, ২০২২ ৫:৫১:০৯ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
পূর্ব ইউক্রেনের একটি স্কুলে বোমা হামলায় বহু মানুষ মারা গেছে বলে আশংকা করা হচ্ছে। সেখানে ইউক্রেনের সরকারি বাহিনীর সঙ্গে রুশ সেনা এবং বিচ্ছিন্নতাবাদীদের লড়াই চলছে।

লুহানস্ক অঞ্চলের গভর্নর সেরহি হাইডাই জানিয়েছেন, বিলোহোরিভকার কাছে এই স্কুলে এ পর্যন্ত দু’জনের মৃত্যুর খবর তারা পেয়েছেন, তবে স্কুল ভবনটির নিচে চাপা পড়ে আরও প্রায় ৬০ জন নিহত হয়েছে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

ঐ ভবনটির মধ্যে প্রায় ৯০ জন মানুষ আশ্রয় নিয়েছিল। এদের মধ্যে ৩০ জনের মতো মানুষকে উদ্ধার করা গেছে। এদের মধ্যে সাতজন বোমা হামলায় আহত হয়।

মিস্টার হাইডাই অভিযোগ করেছেন, একটি রুশ বিমান থেকে শনিবার এই বোমা ফেলা হয়। তবে তার এই কথা স্বাধীন সূত্র থেকে যাচাই করা যায়নি। রাশিয়াও এখনো পর্যন্ত এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করেনি।

লুহানস্কে রুশ সেনা এবং বিচ্ছিন্নতাবাদী যোদ্ধারা ইউক্রেনের সরকারি সেনাদের বিরুদ্ধে তীব্র লড়াই চালাচ্ছে। গত দুমাস ধরেই সেখানে তারা চেষ্টা করছে ইউক্রেনের সরকারি সেনাদের চারিদিক থেকে ঘেরাও করে ফেলতে।

বিলোহোরিভকা এলাকাটি ইউক্রেনের সরকারি বাহিনী নিয়ন্ত্রিত শহর সেভেরোদোনেৎস্ক শহরের কাছে, যেখানে শনিবার তীব্র লড়াই চলছিল বলে খবর পাওয়া যাচ্ছিল। একটি ইউক্রেনিয়ান সংবাদপত্র ‘ইউক্রেনিস্কা প্রাভদা’ বলেছে, গত সপ্তাহে এই গ্রামটিকে ঘিরেই সবচেয়ে ভয়ংকর লড়াই হয়েছে।

বিস্ফোরণে স্কুল ভবনটি ধসে যায় এবং আগুন ধরে যায়। দমকল কর্মীরা তিন ঘণ্টা ধরে চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে বলে জানিয়েছেন লুহানস্কের গভর্নর।

তিনি বলেন, প্রায় পুরো গ্রামের মানুষই ঐ স্কুলটির বেজমেন্টে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছিল। তিনি জানান, স্কুল ভবনটির ধ্বংসাবশেষ সরানোর পরই কেবল সেখানে আসলে কত লোক নিহত হয়েছে তা জানা সম্ভব হবে।

মিস্টার হাইডাই জানান, এর পাশের শাইপিলোভো গ্রামের একটি বাড়িও রুশ গোলাবর্ষণের শিকার হয়েছে। ঐ বাড়ির বেজমেন্টে আটকে পড়েছে ১১ জন। উদ্ধার কর্মীরা বলছেন, এখনো সেখানে গোলাবর্ষণ চলছে, তাই এখনো তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে পারেননি।

এদিকে পূর্ব ইউক্রেনের অন্যান্য জায়গা থেকেও নতুন করে লড়াইয়ের খবর আসছে। বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতারা রুশ সরকারি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ইউক্রেনের সরকারি বাহিনী দোনেৎস্ক শহরে এবং হোলমিভস্কি শহরে গোলাবর্ষণ করেছে।

গত ২৪শে ফেব্রুয়ারি রুশ অভিযান শুরুর পর জাতিসংঘ এপর্যন্ত ২ হাজার ৩৪৫ জন বেসমারিক মানুষের মৃত্যুর এবং ২ হাজার ৯১৯ জন আহত হওয়ার ঘটনা রেকর্ড করেছে। এই যুদ্ধে দুই পক্ষেই হাজার হাজার যোদ্ধাও নিহত হয়েছেন বলে অনুমান করা হয়।

ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত ১ কোটি ২০ লাখের বেশি মানুষ তাদের বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে গেছে বলে ধারণা করা হয়। এর মধ্যে প্রায় ৫৭ লাখ মানুষ প্রতিবেশী দেশগুলোতে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছে। অন্যরা দেশের ভেতরেই এক অঞ্চল থেকে অন্য অঞ্চলের দিকে পালিয়েছে।

ইউক্রেনের ডনবাস অঞ্চলের লুহানস্কের বেশিরভাগ এলাকা এবং দোনেৎস্ক গত আট বছর ধরেই বিচ্ছিন্নতাবাদীদের নিয়ন্ত্রণে।

আরও পড়ুন : শ্রীলঙ্কায় আবারও জরুরি অবস্থা জারি

জনপ্রিয়