বাংলাদেশের লজ্জাজনক হার

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, এপ্রিল ৪, ২০২২ ৫:৪২:১০ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে প্রতিপক্ষের ২০ উইকেট নেওয়ার দুঃসাধ্য সাধন করেছেন বাংলাদেশের বোলারেরা। লক্ষ্যটাও এনে দিয়েছিলেন তিনশর নিচে। কিন্তু, ব্যাটারদের চরম দুর্দশায় এ রান পাড়ি দিতে পারলেন না বাংলাদেশের ব্যাটারেরা। তাতে গড়া হলো না ইতিহাসও। ওয়ানডে জয়ের স্বাদ মিললেও দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে লজ্জার হার দেখল বাংলাদেশ।

ডারবান টেস্টের পঞ্চম দিনের প্রথম সেশনেই বাংলাদেশকে গুঁড়িয়ে দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। বাংলাদেশকে ২২০ রানে হারিয়ে দুই ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ডিন এলগারের দল। সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট মাঠে গড়াবে আগামী ৭ এপ্রিল, পোর্ট এলিজাবেথে।

গতকাল রোববার দিনের শেষ সেশনেই সমীকরণ কঠিন করে ফেলেছিলেন বাংলাদেশের ব্যাটাররা। স্কোরবোর্ডে ৮ উইকেট তুলতেই হারিয়ে ফেলেছিল গুরুত্বপূর্ণ তিন উইকেট। তাতে আজ সোমবার শেষ দিনে হয়তো তাড়া করতে হতো ২৬৩ রান, নয়তো ম্যাচ বাঁচাতে টিকে থাকতে হতো পুরো দিন। কিন্তু, এর কোনোটিই পারল না বাংলাদেশ।

আজ দিনের শুরুতেই মুশফিকুর রহিমকে হারায় বাংলাদেশ। কেশব মহারাজের রাউন্ড দ্য উইকেটে করা বল সোজা হয়ে ঢোকে ভেতরে। মুশফিক বুঝে ওঠার আগেই বল লেগে যায় প্যাডে। সঙ্গে সঙ্গে আম্পায়ার আঙুল তুলে ফেলেন। রিভিউ নেন মুশফিক। কিন্তু রক্ষা পাননি। শূন্য রানে ফেরেন অভিজ্ঞ মুশফিক।

মুশফিকের ধাক্কা না সামলাতেই লিটন দাসকেও হারায় বাংলাদেশ। সেটিও মহারাজের বলে। তাঁর অফ স্টাস্পে ঝুলিয়ে দেওয়া বলে লিটন ফ্লিক করতে গিয়ে ধরা পড়েন মিড উইকেটে। লিটন ফেরেন ২ রান করে।

এরপর শুধু হতাশাই দেখেছে বাংলাদেশ। বোলিংয়ে রীতিমতো উৎসব করেছেন কেশব মহারাজ। তাঁর সঙ্গে উইকেট উৎসবে যোগ দেন সিমন হারমার। দুই বোলার দিয়েই বাংলাদেশের সবগুলো উইকেট তুলে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। মহারাজ একাই তুলে নেন সাত উইকেট। আর, সিমন তুলে নেন তিনটি উইকেট। দুই বোলারে মোট ১০ উইকেট তুলে নিয়ে প্রথম ঘণ্টাতেই ম্যাচ নিজেদের করে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা।

প্রথম ইনিংসে মাহমুদুল হাসান জয় ও লিটন দাসরাও কিছুটা আশা দেখিয়েছেন বাংলাদেশকে। কিন্তু, দ্বিতীয় ইনিংসে সবার ব্যাটিং ছিল হতাশাজনক। বাংলাদেশের স্কোরবোর্ড দেখে চোখ কপালেই ওঠার কথা। কারণ, দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের ব্যাটারদের স্কোর যথাক্রমে—৪, ০, ২৬, ২, ০, ২, ৫, ০, ১৪, ০ ও ০। শুধু ২০-এর ঘর পার করা নাজমুল হোসেন শান্ত করেছেন ২৬ রান। আর, বাকিরা ছিলেন উইকেটে আসা-যাওয়ার মিছিলে। তাতে সহজেই প্রথম ঘণ্টাতেই ম্যাচ জিতে নিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

এর আগে টেস্টের প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৩৬৭ রানে থামায় মুমিনুল হকের দল। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে প্রথম ইনিংসে সর্বোচ্চ ৯৩ রান করেন তেম্বা বাভুমা।

বিপরীতে প্রথম ইনিংসে ব্যাট করে ২৯৮ রান করেছে বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের হয়ে সেঞ্চুরি করেছেন মাহমুদুল হাসান জয়। তিনি খেলেছেন ১৩৭ রানের ইনিংস। ৩২৬ বলে তাঁর ইনিংসে ছিল ১৫টি বাউন্ডারি ও দুটি ছক্কা। এ ছাড়া দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪১ রান করেছেন লিটন দাস।

এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করে ২০৪ রানে থেমেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এর আগে প্রথম ইনিংসে তাদের লিড ছিল ৬৯। সবমিলে বাংলাদেশকে ২৭৪ রানের লক্ষ্য দেয় ডিন এলগারের দল। এ রান তাড়ায় নেমে কালই তিন উইকেট হারিয়ে ১১ রানে দিন শেষ করে মুমিনুল হকের দল। আজ বাকি উইকেট গুলো হারিয়ে ম্যাচে হার দেখে বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম ইনিংস : ১২১ ওভারে ৩৬৭/১০

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস : ১১৫.৫ ওভারে ২৯৮/১০

দক্ষিণ আফ্রিকা দ্বিতীয় ইনিংস : ৭৪ ওভারে ২০৪/১০ (এরউই ৮, এলগার ৬৪, পিটারসেন ৩৬, বাভুমা ৪, ভেরেইনা ৬, মুল্ডার ১১, রিকলটন ৩৯, কেশব ৫, সিমন ১১, উইলিয়ামস ০, অলিভার ০ ; খালেদ ১৩-১-৩৩-০, মিরাজ ৩৫-৬-৮৫-৩, শান্ত ১-০-৩-০, টাসকিন ১১-১-২৪-২, ইবাদত ১৩-১-৪০-৩)।

বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস : ১৯ ওভারে ৫৩/১০ (সাদমান ০, জয় ৪, মুমিনুল ২, মুশফিক ০, শান্ত ২৬, লিটন ২, ইয়াসির ৫, মিরাজ ০, তাসকিন ১৪, খালেদ ০, ইবাদত ০ ; কেশব ১০-০-৩২-৭, সিমন ৯-৩-২১-৩)।

ফল : দক্ষিণ আফ্রিকা ২২০ রানে জয়ী।

আরো পড়ুন : সপ্তমবারের মতো নারী বিশ্বকাপ জিতলো অস্ট্রেলিয়া

জনপ্রিয়