বিশ্বকাপ ক্রিকেটে আমরাও চ্যাম্পিয়ন হতে পারি

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, মে ৩০, ২০১৯ ১১:০৯:২১ পূর্বাহ্ণ
Reza

রেজা চৌধুরী : মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বাধীন বাংলাদশ ক্রিকেট দলের স্বপ্নের পাপড়ি মেলে দিয়েছে দিগন্তজুড়ে। আকাশ ছোঁয়ার স্বপ্ন নিয়ে বিশ্বকাপ ক্রিকেটে গিয়েছে বাংলাদেশ। সেই সাথে আমরা বিশাল এক স্বপ্ন নিয়ে আশায় বুক বেধে আছি।

এবারের দলটি অতীতের যেকোনে দলের চেয়েই শক্তিশালী ও পরিপক্ক।  বাংলাদেশের বর্তমান দলটিকে তো রানাতুঙ্গা ১৯৯৬ বিশ্বকাপজয়ী দল শ্রীলঙ্কার সঙ্গে তুলনা করছেন। এর মূলে রয়েছে মাশরাফি বিন মুর্তজা। তাঁর ক্যারিশমেটিক অধিনায়কত্ব দৃষ্টি কেড়েছে কিক্রেটবোদ্ধাদের।

এর আগে ২০১৫ বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছে, ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে উঠে চমকে দেয়। আর দ্বিপক্ষীয় সিরিজে হারিয়েছে পাকিস্তান, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো দলকে। তা ছাড়া গত বছরই তিন-তিনটি টুর্নামেন্টের ফাইনালে খেলেছে।

ঘরের মাঠের ত্রিদেশীয় সিরিজ, আবুধাবিতে এশিয়া কাপ, নিদাহাস ট্রফি এবং বিশ্বকাপের প্রস্তুতি টুর্নামেন্ট আয়ারল্যান্ডের ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ওঠে। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জিতে প্রথম কোনো সাফল্য পায় বাংলাদেশ। তাই বিশ্বকাপের আগে আত্মবিশ্বাসের একেবারেই তুঙ্গে রয়েছে মাশরাফি বাহিনী।

এবারের দলে রয়েছে পাঁচজন অভিজ্ঞ খেলোয়ার। এদের মধ্যে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা খেলেছেন ২০৯টি ওয়ানডে ম্যাচ, মুশফিকুর রহিম ২০৫, সাকিব আল হাসান ১৯৭, তামিম ইকবাল ১৯৩ ও মাহমুদউল্লাহ ম্যাচ খেলেছেনে ১৭৫টি। অভিজ্ঞতার আলোকে যে কোনো দলকে হারিয়ে দিতে পারে অনায়াসে। এছাড়া রয়েছে একঝাঁক তরুণ ক্রিকেটার। সাব্বির রহমান, সৌম্য সরকার, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, মুস্তাফিজুর রহমান ও সাইফউদ্দিনের মতো ক্রিকেটার প্রয়োজনের সময় ঝলসে উঠতে পারেন।

বাংলাদেশী ক্রিকেট দল। ছবি: সংগৃহীত।

বর্তমান দল নিয়ে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, ‘বিশ্বকাপ জেতার সামর্থ্য বাংলাদেশের অবশ্যই আছে। তবে কজাটা খুবই কঠিন। আমরা মনে করি, কোনো অর্জনই সহজে আসে না। নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দেয়াটাই আমাদের কাজ। এর আগে আমরা এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠেও শিরোপা জিততে পারিনি। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিলাম। তাই বলে পথ হারাইনি। বিশ্বকাপের আগে ত্রিদেশীয় ক্রিকেটে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছি।

দেশের অনেক ক্রিকেটবোদ্ধা বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে সেমিফাইলে দেখার আশা করেছেন। কিন্তু আমি চাই, দেশের সকল জনগণ চান বাংলাদেশ নিজেদের সেরাটা উজার করে দিয়ে চ্যাম্পিয়নের বেশেই দেশে ফিরে আসুক। কারণ, অংশগ্রহণকারী সকল দেশকে হারানোর ক্ষমতা বাংলাদেশের রয়েছে। তাছাড়া, গত বিশ্বকাপে যদি মাশরাফিরা যদি কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠতে পারে, তাহলে এবার তার চেয়ে বড় প্রত্যাশা আমরা করতেই পারি।

আরও পড়ুন :

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জয়া-রাজ্জাক

Leave a Reply

Your email address will not be published.

জনপ্রিয়