বেটিং সাইটের সঙ্গে চুক্তি বাতিল না করলে বাদ পড়বেন সাকিব

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১১, ২০২২ ৫:৪৬:৩৯ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক:
এশিয়া কাপের দল ঘোষণার আগ মুহূর্তে সাকিব আল হাসানের ইস্যুতে উত্তাল ক্রিকেট পাড়া। সম্প্রতি বেটউইনার নিউজ ডটকমের ওয়েবসাইটের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে চুক্তি করেছেন বাংলাদেশের তারকা সাকিব। যেটা বেটিং সংস্থা বেট উইনারের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান। এই চুক্তি থেকে সরে না আসলে বাংলাদেশ দলে রাখা হবে না বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে। এ ব্যাপারে স্পষ্ট মতামত জানিয়ে দিয়েছেন, বিসিবিপ্রধান নাজমুল হাসান পাপন।

আজ বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে নাজমুল হাসান জানিয়েছেন, সাকিব যদি বেটউইনার নিউজ ডটকমের সঙ্গে চুক্তি বাতিল না করেন তাহলে নেতৃত্বের পাশাপাশি দলেও জায়গা হারাবেন। এ ব্যাপারে জিরো টলারেন্স নীতিই অনুসরণ করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

বিসিবিপ্রধান জানিয়েছেন এখন সবকিছু নির্ভর করছে সাকিবের সিদ্ধান্তের ওপর, ‘বিসিবিতে ক্লিয়ার লেখা আছে, যে কিসের কিসের সঙ্গে সম্পর্ক করা যাবে, কোনটার সঙ্গে যাবে না। বেটউইনাইরের অনেক কিছুই আছে। বিসিবি এই ব্যাপারে জিরো টলারেন্স নীতিতে থাকবে। বেটিং সাইটের সঙ্গে কোনো সম্পৃক্ততা থাকলে বাংলাদেশ দলেই থাকবে না সাকিব, অধিনায়কত্ব তো দূরের ব্যাপার। এখন সবকিছু তার (সাকিবের) ওপর নির্ভর করছে। সে দেশের জন্য খেলবে নাকি বেটিং সাইটের সঙ্গে যুক্ত থাকবেন সেটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার।’

কদিন আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক বিবৃতিতে সাকিব নিজেই বেটউইনার নিউজ ডটকমের সঙ্গে চুক্তির ঘোষণা করেছেন। কিন্তু বেটউইনারের সঙ্গে সাকিবের চুক্তির ঘোষণার পরপরই উঠছে নানা প্রশ্ন। কেননা, বাংলাদেশের নিয়ম অনুসারে, বেটউইনার তথা জুয়ার কোনো প্রতিষ্ঠানের যুক্ত হওয়া যাবে না।

এক পোস্টে বাংলাদেশি তারকা লিখেছেন, ‘বেটউইনার নিউজের সঙ্গে আমার অফিসিয়াল চুক্তির বিষয় আমি গর্ব সহকারে জানাতে চাই। বেটউইনার নিউজ খেলার তথ্যের অন্যতম এক মাধ্যম। আপনারা যদি বর্তমানের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে চান এবং খেলার বিশ্লেষণ কিংবা হাইলাইটস পেতে চান তবে বেটউইনার নিউজ আপনার জন্য ইন্টারনেটে বেটউইনার নিউজ খুঁজে নেন।’

ক্রীড়াভিত্তিক কোনো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সাকিব চাইলে যুক্ত হতেই পারেন। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে সাইটটি বেটউইনার নিউজ হচ্ছে বেটউইনার ডটকমের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। আর এই বেটউইনার হচ্ছে অনলাইনে জুয়া খেলার মাধ্যম। এর মাধ্যমে যে কোনো ব্যক্তি চাইলেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, ফুটবল থেকে শুরু করে যে কোনো খেলা নিয়েই জুয়া খেলতে পারেন।

বাংলাদেশের আইন ও বিসিবির রীতি অনুযায়ী জুয়া জাতীয় যে কোনো খেলাই দণ্ডনীয় অপরাধ। তাই জুয়ার কোনো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সাকিবের যুক্ত হওয়াটাও প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে।

আরও পড়ুন : বোলিং দাপটে সান্তনার জয় পেল বাংলাদেশ

জনপ্রিয়