বোদায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগ

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বুধবার, মার্চ ৩০, ২০২২ ১০:৩৮:৪২ অপরাহ্ণ

মোঃ আব্দুল খালেক, বোদা (পঞ্চগড়) প্রতিনিধিঃ
পঞ্চগড়ের বোদা সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের যৌন হয়রানি ও শ্লীলতাহানির এক লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ছাত্রীর অভিভাবকরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেছেন।

অভিযুক্ত ব্যাক্তি বোদা সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজের আইসিটির শিক্ষক নুরে আলম সিদ্দিকী (রয়েল) বর্তমানে শিক্ষক হিসেবে কর্মরত।

৮ জন অভিভাবকের এক লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, নুরে আলম সিদ্দিকী বিভিন্ন অজুহাতে ছাত্রীদের ল্যাব রুমে ডেকে কম্পিউটারের ডেস্কটপের বাটন ধরার কৌশল শিখিয়ে দেওয়ার নামে মেয়েদের যৌনহয়রানি করতেন এক পর্যায়ে ছাত্রীদের শরীরের ষ্পর্শ কাতর স্থানে হাত দেন। তাদের বুকে চেপে ধরারও অভিযোগ উল্লেখ করেন।

কেউ ঘটনা ফাঁস করলে তাদেরকে স্কুল থেকে ছাড়পত্র দেয়ারও হুমকী দিতেন। দীর্ঘদিন ধরে এমন হয়রানি চললেও স¤প্রতি কয়েকজন ছাত্রী বিষয়টি তাদের অভিভাবকদের জানায়। তাঁরা কয়েকদিন আগে বিষয়টি প্রধান শিক্ষক জামিউল হক কে জানালেও তিনি কোন সুরাহা দিতে না পারায় বাধ্য হয়ে অভিভাবকরা গত রবিবার এ লিখিত অভিযোগ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট দাখিল করেন।

একাধিক ছাত্রীরা জানায়, এরূপ আচরণে তারা ক্লাস করতে বিরত থাকেন। অনেকে চক্ষু লজ্জায় কিছু প্রকাশ করেননি।
এদিকে নুরে আলম বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনীত অবিযোগ মিথ্যা। আমি আইনী সহায়তা নিব।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জামিউল হক বলেন, এলাকার লোকজন বিদ্যালয়ে এসে আইসিটি শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এ ব্যাপারে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ডাকা হয়েছে।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সোলেমান আলীর সাথে গত মঙ্গলবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি অভিযোগপত্র পেয়েছেন। পত্রটি পাওয়ার পর ঘটনাটি তদন্তের জন্য মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো.আবুল হোসেনকে প্রধান করে ৩সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ১০ দিনের মধ্যে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

আরো পড়ুন : বোদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন

জনপ্রিয়