ব্যালন ডি’অর জিতলেন বেনজেমা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৮, ২০২২ ১১:৫১:০৫ পূর্বাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক:
‘করিম বেনজেমা এবারের ব্যালন ডি’অর জিতবেনই। কেবল জিতবেন না, বিশাল ব্যবধানেই জিতবেন। আর যদি সেটি না হয়, তবে ব্যালন ডি’অরের শ্রেষ্ঠত্ব নিয়ে প্রশ্ন চিরকালই থাকবে।’- ফুটবল ভিত্তিক ওয়েবসাইট গোল.কমের একটা আর্টিকেলে এভাবেই বেনজেমার ব্যালন ডি’অর জয় নিয়ে লেখা ছিল।

ব্যালন ডি’অর তার শ্রেষ্ঠত্ব হারায়নি। সবচেয়ে মর্যাদার এই পুরস্কার উঠেছে গত সিজনের সেরা ফুটবলার ফ্রান্স এবং রিয়াল মাদ্রিদ তারকা বেনজেমার হাতেই। ব্যালন ডি’অরের ৬৬তম আসরে প্রথমবারের মতো এই শ্রেষ্ঠত্বের পুরস্কার নিজের করে পেলেন ফরাসি এই বিশ্বকাপজয়ী তারকা।

ফ্রান্সের পক্ষে সর্বশেষ ব্যালন জেতা কিংবদন্তি জিনেদিন জিদানের হাত থেকে শ্রেষ্ঠত্বের এই পুরস্কার পেলেন বেনজেমা। ১৯৯৮ সালে ফ্রান্সের পক্ষে সর্বশেষ ব্যালন জিতেছিলেন জিদান।

এবার বিতর্ক এবং সমালোচনাকে এড়ানোর জন্য চলতি বছরের মার্চে কিছু ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিনের কমিটি ব্যালন ডি’অর জয়ের ক্ষেত্রে কিছু নিয়মের পরিবর্তন আনে। যেখানে মূল শর্ত ছিল, বছর নয় বরং একটা নির্দিষ্ট সিজনের উপর ভিত্তি করে এখন থেকে দেওয়া হবে ব্যালন ডি’অর পুরস্কার। এমনকি এই মর্যাদার পুরস্কার জয়ের জন্য ভোটিং এর নিয়মেও পরিবর্তন আনে আয়োজক কমিটি।

ফলে এই বছরের বিশ্বকাপের পারফরম্যান্স ২০২২ নয় বরং ২০২৩ সালের ব্যালন ডি’অর জয়ের জন্য বিবেচিত হবে। আর গত সিজনের পারফরম্যান্স বিবেচনায় সবার চেয়ে এগিয়েই ছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের ফরাসি তারকা করিম বেনজেমা। গত সিজনে জাতীয় দল এবং লস ব্লাঙ্কোসদের জার্সিতে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে শুরু করে লা লিগা, উয়েফা ন্যাশন্স লিগ এবং সুপারকোপা জিতেছেন বেনজেমা।

কেবল শিরোপা জেতা নয় বেনজেমা গত সিজনে ছিলেন অসাধারণ, অতিমানবীয়। ২০২১-২২ সিজনে ক্লাব এবং জাতীয় দল মিলিয়ে ৪৮ গোল করেছেন, করিয়েছেন আরও ১৫টি। রিয়ালকে বলা চলে একাই জিতিয়েছেন ইউরোপ সেরার শিরোপা।

গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগের আসরে ১২ ম্যাচে করেছেন ১৫ গোল। এরমধ্যে শেষ ষোলোতে মেসির পিএসজিকে হারানো ম্যাচে করেছিলেন হ্যাট্রিক। এরপর চেলসির বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালেও হ্যাট্রিক করে দলকে এগিয়ে রেখেছিলেন। ব্লুজদের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালের দুই লেগ মিলিয়ে করেছেন ৪ গোল।

এমনকি ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে সেমিফাইনালের দুই লেগেও ৩৪ বছর বয়সী এই ফরাসির পা থেকে এসেছে ৩ গোল। কেবল গোল নয়, পিছিয়ে পড়েও রিয়ালকে জিতিয়ে একের পর এক রুপকথার গল্পই যেন লিখেছেন। লা লিগায়ও শিরোপা জেতার পথে করেছিলেন ২৭ গোল।

এমন অতিমানবীয় পারফরম্যান্সের পর বিশাল বিশাল ব্যবধানেই ব্যালন ডি’অর জয়ের কথা ছিল বেনজেমার। এই ফরাসি সুপারস্টার বিশাল ব্যবধানেই জিতেছেন। পঞ্চম ফরাসি হিসেবে মর্যাদার এই পুরস্কার নিজের করে নিলেন বেনজেমা। তার আগে ফ্রান্সের পক্ষে ব্যালন ডি’অর জিতেছিলেন কিংবদন্তি মিশেল প্লাতিনি, জ্যা পিয়েরে পাপিন, জিনেদিন জিদান এবং রেমন্ড কোপা।

করিম বেনজেমা ছাড়া ব্যালন ডি’অরের মঞ্চে পুরস্কার জিতেছিলেন যারা

কোপা ট্রফি (সেরা তরুণ ফুটবলার): গাভি (স্পেন/বার্সেলোনা)।

সক্রেটিস অ্যাওয়ার্ড (জনকল্যাণমূলক কাজ করায়): সাদিও মানে (সেনেগাল/বায়ার্ন মিউনিখ)।

নারী ব্যালন ডি’অর জয়ী: অ্যালেক্সিয়া পুতেয়াস (স্পেন/বার্সেলোনা)।

গার্ড মুলার ট্রফি (ইউরোপের সেরা গোলদাতা): রবার্ট লেভানদোভস্কি (পোলান্ড/বার্সেলোনা)।

লেভ ইয়াসিন ট্রফি (সেরা গোলরক্ষক): থিবাও কর্তোয়া।

সেরা ক্লাব: ম্যানচেস্টার সিটি।

আরও পড়ুন : আফগানিস্তানের কাছে লজ্জাজনক হার বাংলাদেশের

জনপ্রিয়