ভাষা আন্দোলনে ছিল স্বাধিকারের চেতনা : মির্জা ফখরুল

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২২ ১০:৫০:১২ পূর্বাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করার জন্য ছাত্রদের আত্মত্যাগের মতো নজিরবিহীন ঘটনা কোথাও ঘটেনি। ৭০ বছর আগে এ ভাষা আন্দোলনের যে চেতনা ছিল, তা এখন নেই। ৭০ বছর আগে এ ভাষা আন্দোলনের চেতনা ছিল আমাদের স্বাধিকারের চেতনা, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ব্যবস্থার চেতনা, চেতনা ছিল মুক্ত সমাজ ব্যবস্থা‌র। সে চেতনাকে ধারণ করে ১৯৭১ সালে আমরা স্বাধীনতার যুদ্ধ করেছি।’

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আজ সোমবার সকালে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন ও পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে এ কথা বলেন মির্জা ফখরুল।

এ সময় বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আজ থেকে ৭০ বছর আগে বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রভাষা করার জন্য শহীদ জব্বার, বরকতসহ আরও অনেকে রাজপথে আত্মত্যাগ করেছিলেন। সে সময় পাকিস্তান বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করতে বাধ্য হয়েছিল। কিন্তু, বাংলা ভাষা এখনও সর্বস্তরে প্রচলিত হয়নি।’

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করার জন্য ছাত্রদের আত্মত্যাগের মতো নজিরবিহীন ঘটনা কোথাও ঘটেনি। ৭০ বছর আগে এ ভাষা আন্দোলনের যে চেতনা ছিল, তা এখন নেই। ৭০ বছর আগে এ ভাষা আন্দোলনের চেতনা ছিল আমাদের স্বাধিকারের চেতনা, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ব্যবস্থার চেতনা, চেতনা ছিল মুক্ত সমাজ ব্যবস্থা‌র। সে চেতনাকে ধারণ করে ১৯৭১ সালে আমরা স্বাধীনতার যুদ্ধ করেছি। শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ঘোষণার মধ্য দিয়ে সেদিন এ জাতি ঝাঁপিয়ে পড়েছিল মুক্তিযুদ্ধে। আমরা দেখেছি শহীদ জিয়াউর রহমান যে একুশে পদক চালু করেছিলেন, সেটি এখনও চলছে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দুর্ভাগ্য আমাদের, আজ এমন একটি সরকার জনগণের ঘাড়ে চেপে বসে আছে… তারা একুশের চেতনাকে ভূলুণ্ঠিত করে দিয়েছে। তারা ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে, বাকস্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে এবং এ দেশের অর্থনীতিকে পঙ্গু করে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আমাদের গণতন্ত্রের মাতা বেগম খালেদা জিয়া আজ অসুস্থ অবস্থায় গৃহবন্দি হয়ে আছেন। অগণিত মানুষ আজ মামলায় পড়ে আছে। এ রকম একটা ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে দেশ পরিচালিত হচ্ছে।’

আরো পড়ুন : আজ মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

জনপ্রিয়