মঠবাড়িয়ায় বীর নিবাসের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিলো পুলিশ

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, জুলাই ৭, ২০২২ ৭:৩৪:৫২ অপরাহ্ণ

মজিবর রহমান, পিরোজপুর প্রতিনিধি
মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের অধীনে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় অসচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধার অনুকূলে বরাদ্দকৃত বীর নিবাসের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ ওঠেছে থানা পুলিশ বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) সকাল ১১ টায় উপজেলার মধ্য সোনাখালি গ্রামের বীর মুক্তি যোদ্ধা সেলিম জমাদ্দারের অনুকূলে বরাদ্দ কৃত নির্মাণকাজ শান্তি-শৃঙ্খলা বিঘ্নিত হওয়ার উপক্রম দেখা দেয়ার অজুহাত দেখিয়ে বন্ধ করে দেয় পুলিশ।

বীর মুক্তিযোদ্ধা সেলিম জমাদ্দার জানান,উপজেলা প্রশাসন ২০২১-২২ অর্থবছরে মঠবাড়িয়ার অসচ্ছল ৭৫ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ৭৫টি বীর নিবাস নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। তারই ধারাবাহিকতায় টেন্ডার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ঘর নির্মাণের কাজ শুরু করলে আমার প্রতিবেশী মৃত নান্না মুন্সির বিধবা স্ত্রী হোসনে আরা বেগম উপজেলা প্রশাসনের কাছে বীর নিবাসের স্থানে জমি পাবেন এমন অভিযোগ দিলে বিষয়টি তাদের উপস্থিতিতে নিষ্পত্তি করা হয়। এরপরেও প্রতিপক্ষ হোসনে আরা থানায় অভিযোগ দিলে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জেন্নাত আলী সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘরের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়ে থানায় দেখা করতে বলেন।

এ বিষয় শরণখোলা উপজেলার যুদ্ধকালীন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মজিবুল হক খান মজনু জানান, থানা পুলিশের বীর নিবাসের কাজ বন্ধ করে দেয়ার কোনো এখতিয়ার নেই। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের অবহিত করা হয়েছে।

মঠবাড়িয়া থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) জিন্নাত আলীর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, হোসনে আরা বেগমের লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সরেজমিনে গিয়ে শান্তি-শৃঙ্খলা বিঘ্নিত হওয়ার উপক্রম দেখা দেয়ার বীর নিবাসের ঘর নির্মাণের কাজ স্থগিত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : মঠবাড়িয়ায প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্বোধনী উদ্যোগ বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা

জনপ্রিয়