মঠবাড়িয়ায় ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত আবেদনপত্র যাচাই বাছাই শুরু

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, জুলাই ২৩, ২০২২ ৬:০৬:৫০ অপরাহ্ণ

মজিবর রহমান,পিরোজপুর প্রতিনিধি
মুজিব বর্ষে বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবেনা “প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে আশ্রয়ন প্রকল্প -২” এর আওতায় চলতি মাসে এ উপজেলাকে শতভাগ ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা করার লক্ষ্যে ২ কক্ষ বিশিষ্ট সেমি পাকা ঘরের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে যাচাই-বাছাই করা শুরু হয়েছে।

শনিবার (২৩ জুলাই) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ভূমিহীন ও গৃহহীনদের ক শ্রেনীভুক্ত হওয়ার ১৫১টি জমা পড়া আবেদন পত্র সরেজমিেন গিয়ে তথ্য যাচাই বাছাই করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও বিজ্ঞ বিচারিক হাকিম সাথাওয়াত জমিন সৈকত। শ্রাবণের মুষলধারা বৃষ্টি উপেক্ষা করে তিনি উপজেলা আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের উত্তর সোনাখালী দক্ষিণ সোনাখালি ও আমড়াগাছিয়া গ্রামের প্রত্যন্ত এলাকার বসবাসরত সহায় সম্বলহীন হতদরিদ্রদের খোঁজখবর নিয়ে প্রকৃত ভূমিহীন ও গৃহহীনদের তালিকা প্রণয়ন করেন।এ সময় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কার্যালযের উপসহকারী প্রকৌশলী শাহিন খান,সংশ্লিষ্ট তহশীলদার ও উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মজিবর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও বিজ্ঞ বিচারিক হাকিম সাখাওয়াত জামিন সৈকত জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের প্রকল্পে যারা সহায় সম্বলহীন এবং মুজিববর্ষের আশ্রায়ন প্রকল্পের ঘর পেতে ইচ্ছুক তারাই পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর। উপকারভোগীর ঘরের তালিকা যেন স্বচ্ছ ও সর্বজন স্বীকৃত হয় এবং কেউ যেন বাদ না যায সে জন্য প্রতিটি ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ওয়ার্ড কমিটির আহ্বায়ক হচ্ছেন ইউপি সদস্য ও সদস্য সচিব হচ্ছেন তহশিলদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শিক্ষক। ওই কমিটি বাছাই করে ইউনিয়ন কমিটির আহ্বায়ক ইউপি চেয়ারম্যান ও সংশ্লিষ্টদের কাছে পাঠালে তারা পুনরায় যাচাই-বাছাই করে উপজেলা ট্যাংকস ফোর্স কমিটির কাছে পাঠালে তারা ইউনিয়ন কমিটির দেয়া তালিকা দৈবচরণের ভিত্তিতে সরেজমিনে গিয়ে যথাযথভাবে দেখা হয়েছে কিনা?

তিনি আরো জানান, এ পর্যন্ত কোনো অভিযোগ অনুযোগ ছাড়াই শতভাগ স্বচ্ছ তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। আশাকরি ২৫ জুলাই ক- শ্রেণীর ভূমিহীন গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা করা হবে।

আরও পড়ুন : মঠবাড়িয়ায় বীর নিবাসের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিলো পুলিশ

জনপ্রিয়