মঠবাড়িয়ায় বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করতে না পেরে মা-মেয়ের ওপর হামলা!

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২২ ৬:৫৭:১৯ অপরাহ্ণ

মজিবর রহমান, পিরোজপুর প্রতিনিধি
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় সত ভাই আউয়াল গং কর্তৃক ভিটে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করতে না পেরে অবশেষে সৎ বোন শাহীনুর (৩৫) ও তার মেয়ে সুমাইয়া (১৮) এর ওপর অমানুষিক নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। গত বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার গোলবুনিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের গোলবুনিয়া গ্রামের মৃত আতাহার ফরাজির দুই স্ত্রীর মধ্যে প্রথম ঘরের ছেলে আউয়াল ফরাজি, নান্না ফরাজি, আব্দুর রহিম ফরাজি সৎ বোন শাহীনুর বেগমকে পৈতৃক সূত্রে প্রাপ্ত সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করার জন্য দীর্ঘদিন ধরে পায়তারা করে আসছিল।

শাহীনুরের পাশ্ববর্তী শরণখোলা উপজেলায় বিয়ে হওয়ায় স্বামী ভুমিহীন থাকায় পিতার পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত বসতবাড়ি স্থাপন করে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছেন।

আউয়াল ফরাজি গংরা ইতিপূর্বে সৎ বোন কে ওই ভিটে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ ও একাধিকবার শারীরিক এবং মানুষিকভাবে নির্যাতন করে আসছে।

বুধবার সন্ধ্যায় আউয়াল গংরা ভিটি বাড়ী থেকে টেনে হেঁচড়ে শাহীনুর ও তার মেয়ে মারপিট করে ঘর থেকে বের করে দেন।এ সময় সুমাইয়ার দশ দিনের নবজাতকে জোর পূর্বক মাটিতে ফেলে দেন।

স্থানীয়রা মা ও মেয়েকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করেন।

শাহীনুর কান্না বিজরিত কন্ঠে জানান, সত ভাইয়েরা আমাকে মেয়েকে মারপিট করেই ক্ষ্যান্ত হয়নি। আমরা যাতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হতে না পারি সেজন্য ভয়ভীতি প্রদর্শন ও জীবন নাশের হুমকি দেয়। এ বিষয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আরো পড়ুন : মঠবাড়িয়ায় সীমানা প্রাচীর নিয়ে দ্বন্দ্ব; প্রতিপক্ষের হামলায় যুবলীগ নেতা আহত

জনপ্রিয়