মোংলায় খালের চর থেকে নবজাতকের লাশ উদ্ধার

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৭, ২০২১ ১০:২২:৫১ অপরাহ্ণ

ইউসুফ সুমন, মোংলা প্রতিনিধি
মোংলা পোর্ট পৌরসভা নারকেলতলা এলাকার মাছমারা খালের চর থেকে ভাসমান অবস্থায় এক নবজাতকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে পার্শবর্তী এক বাড়ীর মালিক খালে শিশুর লাশটি ভাসতে দেখে এলাকাবাসীদের খবর দেয়। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানায় মোংলা থানার সহকারী পুলিশ পরিদর্শক বিশ্বজিৎ মুখার্জী।

পুলিশ জানায়, মোংলা উপজেলার নারকেলতলা আবাসন এলাকার পৌরসভার মাছমারা সুইচ গেট সংলগ্ন একটি নবজাতকেল লাশ খালের চরে ভাসতে দেখে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে শিশুটিকে এক নজর দেখার জন্য এলাকা থেকে কয়েক জাহাজ নারী-পুরুষ জড়ো হয় খালের পাড়ে। সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে লোকজনের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ মনিরুল ইসলাম, সেকেন্ড অফিসার একরামুল হক, থানার এমার্জেন্সি অফিসার বিশ্বজিৎ মুখার্জীসহ একদল পুলিশ। প্রাথমিক তদন্ত শুরু করে পুলিশ প্রশাসন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ এলাকাবাসী। খালের চর থেকে নবজাতক শিশুর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে অপমৃত মামলা দায়ের শেষে ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ।

নারকেলতলা এলাকার ইউপি সদস্য মোঃ হারুন মল্লিক বলেন, লোকজনের কাছ থেকে খবর পেয়ে সুইচ গেট সংলগ্ন গিয়ে এক নবজাতকের লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেয়া হয়। পুলিশ এসে শিশুর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। তবে এ খালটি অনেক বড়, বুঝা যাচ্ছে না, কে বা কারা সদ্য ভুমিষ্ট শিশুটিকে খালে ফেলে দিয়েছে। খাল থেকে ভেসে সুইচ গেট এলাকার চরে আটরে রয়েছে। তবে কোথা থেকে আসছে বা কারা এ কাজটি করেছে সে ব্যাপারে কিছুই বলতে পানেী তিনি।

মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ মনিরুল ইসলাম বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যাই এবং লোকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করি। খালের চরে ভাসমান লাশটি মেয়ে শিশু বলে সনাক্ত করা হয়, এছাড়াও শিশুটির লাশ উদ্ধার করে প্রথমে অপমৃত মামলা দায়ের শেষে লাাশ ময়না তদন্তের জন্য মার্গে পাঠানো হয়েছে। তবে প্রাথমিক পর্যায় ধারনা করা হচ্ছে, কেউ অবৈধ গর্ভপাতের ফলে সদ্য ভুমিষ্ট নবজাতক শিশুকে দুই দিন আগে খালে ফেলে দিয়েছে তার জন্মদাতা মা-বাবা অথবা স্বজনরা। তদন্ত চলছে, খুজে বের করা হবে কোন মায়ের সন্তান বা কারা খালে ফেলে দিয়েছে এ নবজাতক (মেয়ে)শিশুটিকে বলে জানায় থানার এ কর্মকর্তা।

 

জনপ্রিয়