মোংলায় সিএসএসের এইডস প্রতিরোধ প্রকল্প পরিদর্শন

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, আগস্ট ৮, ২০২২ ৬:০৯:১১ অপরাহ্ণ

মাসুদ রানা, মোংলা প্রতিনিধিঃ
বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা সিএসএস এর এইচআইভি/এইডস প্রতিরোধ প্রকল্পের মোংলায় চলমান কার্য পরিদর্শন করেছেন। প্রকল্প এলাকা মোংলা সদরের যৌনপল্লীর যৌনকর্মী ও মোংলার বাস টার্মিনালের শ্রমিক শ্রেণির মানুষের সাথে সিএসএস এর এইচআইভি/এইডস প্রতিরোধে সচেতনতার কাজকর্ম সোমবার (৮ আগষ্ট) সরেজমিনে পরিদর্শনে গেলে দেখা যায়, যৌন কর্মীদের বিনামুল্যে এবং পরিবহন শ্রমিকদের অর্ধেক মুল্যে ঔষধ প্রদান করা হয়।

যৌনকর্মী নাসরিন ও রেশমা জানান, সিএসএস এর স্বাস্থ্য কর্মীরা ও সুপারভাইজার আমাদের নিয়ে ভয়াবহ ব্যাধি এইচআইভ/এইডস প্রতিরোধ বিষয়ে সচেতন করতে একক ও দলীয়ভাবে আলোচনা করছেন। বিশ্ব এইডস দিবস নিয়ে আলোচনা করেছেন। এখন আমরা কনডম ছাড়া কোন খদ্দের কে কাছে নেই না।

পরিবহন শ্রমিক জালাল গাজী ও রিয়াজুল সানা জানান সিএসএস পিয়ার এডুকেটর ও সুপারভাইজার আমাদের নিয়ে ভয়াবহ ব্যাধি এইচআইভি/এইডস প্রতিরোধ বিষয়ে সচেতন করতে একক ও দলীয় আলোচনা করছেন। বিশ্ব এইডস নিয়ে আলোচনা করেছেন।

তারা আরো বলেন, এইচআইভি/এইডস যে একটা ভয়াবহ মরনব্যাধী আগে জানতাম না। সিএসএস এর কর্মীরা ওই রোগ ও প্রতিরোধ বিষয়ে আমাদের জানায় রক্ত নিলে ও দিলে এবং অবাধভাবে যৌন মেলামেশা করলে এইচআইভি এইডস রোগ হয়। তাই আমরা এখন কনডম ছাড়া ব্রোথেলে যাই না। আর যেসব যৌনকর্মী তাদের ঘরে কনডম রাখে সেখানে আমরা নির্ভয়ে যাই।

মোংলা বাস টার্মিনাল পরিবহন শ্রমিক সাহেব আলী ও নৌকা শ্রমিক মনিরুলের সাথে এ বিষয়ে কথা বলে জানা যায় এইচআইভি/ এইডস একটা ভয়াবহ মরণব্যাধি এর আগে জানতাম না। সিএসএস এর কর্মীরা এই রোগ ও প্রতিরাধ বিষয়ে আমাদের জানায় রক্ত দিলে ও নিলে এবং অবাধে যৌন মেলামেশা করলে এইচআইভি/এইডস রোগ হয়।

এইচআইভি/এইডস প্রতিরোধে সিএসএস এর প্রকল্প কাজ বাস্তবায়নের স্থানীয় অফিসে গেলে তাদের সেবামুলক কাজ বিষয়ে জানা যায় এইচআইভি/এইডস প্রতিরোধ প্রকল্পের মাধ্যমে যৌনকর্মী সহ অন্যান্য ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীকে এইচআইভি/এইডস বিষয়ে সচেতনও সেবাদান কার্যক্রম সীমিত আকারে বাস্তবায়ন হচ্ছিল। এরই ধারাবাহিকতায় যৌনকর্মী ও পরিবহন শ্রমিকদের নিরাপদ যৌন জীবন এবং এইচআইভি/এইডস প্রতিরাধমূলক ব্যবস্থা সম্পর্কে সচেতন করার পাশাপাশি চিকিৎসা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে ইনক্রিসড রেজিলিয়েন্স অব পার্সন্স অ্যাটরিক্স এ্যাগেইনস্ট এইচআইভি থ্রু এডুকেশন অ্যান্ড এলিনিমেশন অব স্টিগমা প্রকল্পটি বাস্তবায়ন শুরু করেছে। প্রকল্প কাজের মধ্যে রয়েছে স্কুল-কলেজের ছাত্রদের সাথে আলোচনা সেশন, রক্তদাতাদের সাথে আলোচনা সেশন, বিশ্ব এইডস দিবস পালন। গনমানুষকে সচেতন করতে ক্যাবেল টিভিতে প্রচারনা, লিফলেট, পোস্টার, র‌্যালি, দেয়াল লিখন, ভিডিও ডকুমেন্টরি ইত্যাদির মাধ্যমে প্রচারণা। সার্ভিস ডেলিভারীর মধ্যে লক্ষিত জনগোষ্ঠিকে যৌনরোগ এবং সাধারণ রোগের চিকিৎসা প্রদান, যৌন কর্মীদের ফ্রি এবং পরিবহন শ্রমিকদের ৫০% মূল্যে ঔষধ প্রদান, সুশীল সমাজকে শক্তিশালী করতে সাংবাদিকদের সাথে সভা ও কার্যক্রম পরিদর্শন করানো, ধর্মীয় নেতাদের সাথে অ্যাডভোকেসি করা, স্থানীয় সরকার পর্যায় লবিং ও এ্যাডভোকেসি করা, সরকারী ও বেসরকারি স্বাস্থ্য সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের সাথে এ্যাডভোকেসি করা ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সাথে অ্যাডভোকেসি করা।

বাগেরহাট প্রকল্প এরিয়ার ফিল্ড সুপার ভাইজার শেখ মারুফ হোসেন বলেন, সিএসএস ১৯৮৮ সাল থেকে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের মানুষের স্বাস্থ্য সেবায় কাজ করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় সিএসএস ইনক্রিসড রেজিলিয়েন্স অব পার্সন্স অ্যাটরিক্স এ্যাগেইনস্ট এইচআইভি থ্রু এডুকেশন অ্যান্ড এলিনিমেশন অব স্টিগমা প্রকল্পটি হাতে-নিয়েছে। যার প্রকল্প মেয়াদ এ বছরের এপ্রিল মাস থেকে ২০২৩ এর মার্চ মাস পর্যন্ত। এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য যৌনকর্মী এবং পরিবহন শ্রমিক কে স্বাস্থ্যকর জীবন ধারা বিশেষ করে এইচআইভি/এইডস এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ মূলক ব্যবস্থা সম্পর্কে শিক্ষিত করে ক্ষমতায়ন করা।

আরও পড়ুন :রেকর্ড সংখ্যক গাড়ি নিয়ে মোংলায় বিদেশি জাহাজ

জনপ্রিয়