রাজনৈতিক অঙ্গন কলুষিত করেছে সরকার : মির্জা ফখরুল

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২২ ৫:৪৪:২৮ অপরাহ্ণ
ফাইল ফটো

চলমান বার্তা ডেস্ক:
রাজনৈতিক অঙ্গন কলুষিত হয়ে গেছে মন্তব্য করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার রাষ্ট্র ব্যবস্থাকে দলীয়করণ করে ভাগ করে ফেলেছে। আমি মাঝেমধ্যে বলি—এটা একটা নষ্ট সময়। সব কিছুকে সরকার নষ্ট করে ফেলছে। মিথ্যাচার, ভ্রষ্টাচার, দুর্নীতি এমন একটা জায়গা নেই যে, দেশটাকে বের করে আনার কোনো প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে।’

আজ শনিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে এক আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য প্রয়াত গাজী মাজহারুল আনোয়ারের স্মরণে ড. খন্দকার মোশাররফ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আপনি বিচারালয়ে যান বিচার পাবেন না। আপনি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে যাবেন নিরাপত্তার জন্য, সেখানে নিরাপত্তা পাবেন না।’

ফখরুল অভিযোগ করে বলেন, ‘ঢাকা দক্ষিণে ছাত্রদলের তিনজন রাতে বাসায় যাচ্ছিল, ওই সময়ে তাদেরকে আক্রমণ করে আহত করা হয়েছে। মামলা দিতে থানায় গেলে উল্টো ওদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকার গোটা জাতিকে গত ১২-১৫ বছরে বিভক্ত করে ফেলেছে। এমন একটা জায়গা পাবেন না, সেখানে আপনি দেখবেন যে, বিভক্তি নেই।’

‘জাতিকে ঐক্যের মধ্য দিয়ে সামনের দিকে নেওয়া যায়, যেটা প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান করেছিলেন’ উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘রাজনৈতিক অঙ্গনটাই কেমন যেন নষ্ট হয়ে গেছে একদম, কলুষিত হয়ে গেছে। কোথায় ভালো জিনিস আছে বলেন। আজকে এটা তো সত্য কথা যে, বাংলাদেশের রাজনৈতিক কাঠামোটা ভেঙে পড়েছে। কারণ একটা নির্বাচনের মাধ্যমে যে পার্লামেন্ট গঠন হবে, সরকার গঠন হবে, সেই নির্বাচনে জনগণই অংশ নিতে পারে না। তাহলে এটা কিসের নির্বাচন? ওই জায়গাটা তারা ধ্বংস করে ফেলেছে। তাহলে বুঝেন এই যে একটা অবস্থা, এই যে একটা পরিবেশ, এই যে একটা সমাজ, এই যে একটা রাষ্ট্র তারা তৈরি করছে, এখান থেকে মুক্তি হবে কী করে? এটাই এখন বড় প্রশ্ন।’

সদ্যপ্রয়াত গাজী মাজহারুল আনোয়ারকে বাতিঘর হিসেবে অভিহিত করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তিনি আমাদের সামনে একটা নক্ষত্রের মতো ছিলেন, বাতিঘর। আমরা এই ধরনের মানুষ আর পাব না। আমরা অনুপ্রাণিত হই তাঁর গানের মধ্য দিয়ে, আমরা অনুপ্রাণিত হই তাঁর চরিত্রের মধ্য দিয়ে, আমরা অনুপ্রাণিত হই তাঁর কাজের মধ্য দিয়ে। আসুন গাজী ভাইয়ে আত্মার জন্য আমরা সবাই দোয়া করি।’

প্রয়াত গাজী মাজহারুল আনোয়ারের বর্ণাঢ্য জীবন-কর্ম তুলে ধরেন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ব্যারিস্টার খন্দকার মারুফ হোসেনের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য দেন স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আমান উল্লাহ আমান, আবদুস সালাম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আশরাফ উদ্দিন আহমেদ উজ্জ্বল, গাজীপুরের সভাপতি ফজলুল হক মিলন, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক মোস্তফা কামাল মজুমদার ও এম আবদুল্লাহ প্রমুখ

এসময় প্রয়াত গাজী মাজহারুল আনোয়ারের স্ত্রী জোহরা গাজী ও ছেলে সরফরাজ আনোয়ার উপল বক্তব্য দেন।

আরও পড়ুন : সরকার উসকানি দিয়ে সহিংস পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চায় : মির্জা ফখরুল

জনপ্রিয়