রাণীশংকৈলে দরপত্র ক্রয় ও দাখিল নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে মেয়রের মতবিনিময়

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, অক্টোবর ২২, ২০২২ ৬:১৭:৪৭ অপরাহ্ণ

মাহাবুব আলম, রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি
জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট তহবিল প্রকল্পের আওতায় সোলার স্টিক লাইট স্থাপনে দুই কোটি টাকার দরপত্রের আলোচিত ঘটনায় সাংবাদিকদের সাথে শনিবার (২২অক্টোবর) ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান এক মতবিনমিয় সভার আয়োজন করেন।

পৌর কার্যালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সাথে সতবিনিময় সভায় তিনি বলেন, স্থানীয় কয়েকজন ঠিকাদার উক্ত দরপত্রকে কেন্দ্র করে দরপত্রটির সিডিউল ক্রয়ের তারিখ পরিবর্তনের জন্য ৬ সেপ্টেম্বর ইউএনও এবং স্থানীয় সরকার শাখা ঠাকুরগাঁও উপ-পরিচালক বরাবর আবেদন করেন। অথচ আজকে দেখা গেল কোন স্থানীয় ঠিকাদার দরপত্র দাখিল করেননি।

তিনি আক্ষেপ করে আরো বলেন, যে ঠিকাদাররা আমাকে নিয়ে ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছিল অথচ আজ তাদের দরপত্র ক্রয়ের যোগ্যতা না থাকায় কেউ দরপত্র ক্রয় করতে পারেননি। শুধুমাত্র কতিপয় ঠিকাদার আমার দল, পৌরসভা ও সরকারের ভাবমূর্তিক্ষুন্ন এবং আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য গনমাধ্যমে অপপ্রচার চালিয়েছিলেন।যা অত্যান্ত দুঃখজনক।

পৌর অফিস সূত্রে জানা যায়, জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট তহবিল প্রকল্পের আওতায় সোলার স্টিক লাইট স্থাপনের জন্য পৌরসভার সহকারি প্রকৌশলী এসএম জাবেদ আলী স্বাক্ষরিত গত ২৫ সেপ্টম্বর সংশোধিত টেন্ডার নোটিশ (ওটিএম)এর মাধ্যমে দরপত্র আহবান করে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেয়। কাজটি পেতে– এম/এস এম এম ট্রেডার্স, এম/এস এইম পাউয়ার, ইনারজিয়ন বাংলাদেশ
লিঃ,এম/এস এসএস ট্রেডার্স এই ৪টি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান দরপত্র দাখিল করেছেন। কিন্তু স্থানীয় কোন ঠিকাদার দরপত্র দাখিল করেনি।

এ ব্যাপারে রাণীশংকৈল ঠিকাদার কল্যাণ সমিতির সভাপতি আবু তাহের মুঠোফোনে বলেন,আমাদের রাণীশংকৈলের ঠিকাদারদের এই দরপত্র দাখিলের কোন যোগ্যতা নেই তাই সিডিউল ক্রয় কিংবা দাখিল করা হয়নি ।

প্রসঙ্গত: রাণীশংকৈল পৌরসভার জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট তহবিল প্রকল্পের আওতায় সোলার স্টিক লাইট স্থাপনের কাজটির দরপত্রে ওটিএম এর পরিবর্তে এলটিএম হিসেবে পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ায় ত্রটিজনিত কারণে পৌরমেয়র এক অফিস আদেশে গত ১ সেপ্টেম্বর এটি স্থগিত করেন।

আরও পড়ুন :পীরগঞ্জে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের গণঅনশন

জনপ্রিয়