রাশিয়ার সামরিক স্থাপনা ধ্বংস করলো ইউক্রেন

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২২ ৮:৫৬:১৩ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক
ইউক্রেন থেকে ছোড়া গোলার আঘাতে রাশিয়ার সীমান্তের একটি সামরিক স্থাপনা ধ্বংস হয়েছে বলে জানিয়েছে মস্কো। পূর্ব-ইউক্রেনে চলমান সংঘাত ঘিরে পশ্চিমা বিশ্বের তীব্র উদ্বেগের মাঝে সোমবার এই ঘটনা ঘটেছে।

রাশিয়ার ফেডারেল সিকিউরিটি সার্ভিসের (এফবিএস) সদস্যরা সীমান্তের ওই স্থাপনা ব্যবহার করতেন। খবর আল জাজিরার।

রুশ সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত এফবিএসের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ২১ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে ইউক্রেন থেকে ছোড়া একটি ‘অজ্ঞাত প্রোজেক্টাইলের’ আঘাতে রোস্তভ অঞ্চলে রুশ-ইউক্রেন সীমান্তের ১৫০ মিটার এলাকার আশপাশে এফবিএসের ব্যবহৃত একটি সীমান্ত স্থাপনা পুরোপুরি ধ্বংস হয়েছে।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ইউক্রেন সীমান্তে দেড় লাখের বেশি সৈন্য সমাবেশ করেছে রাশিয়া। ইউক্রেনে রাশিয়া যেকোনও মুহূর্তে আগ্রাসন চালাতে পারে বলে পশ্চিমা বিশ্ব তীব্র উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছে, ইউক্রেনে আক্রমণ চালানো হলে রাশিয়ার বিরুদ্ধে নজিরবিহীন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে।

তবে রাশিয়া হামলা চালানোর পরিকল্পনা অস্বীকার করলেও দেশের নিরাপত্তা নিশ্চিতে এবং পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোতে ইউক্রেনের যোগদান ঠেকানোর লক্ষ্যে কিয়েভের ওপর ব্যাপক চাপ তৈরি করেছে।

ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন অত্যাসন্ন আশঙ্কায় যেকোনও ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুতির কথা জানিয়েছেন পশ্চিমা নেতারা। যুদ্ধ ঠেকাতে ইউক্রেন রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

তবে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা স্বাধীনভাবে মস্কোর এই দাবিটি যাচাই করতে পারেনি।

আরো পড়ুন : সংকট সমাধানে পুতিনকে আলোচনার প্রস্তাব দিলো ইউক্রেন

জনপ্রিয়