রাশিয়া থেকে রুপপুরের মেশিনারিজ পণ্যের চতুর্থ চালান মোংলা বন্দরে

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২২ ৮:০৭:০৫ অপরাহ্ণ

মাসুদ রানা, মোংলা প্রতিনিধি
ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ শুরুর পর থেকে এই চতুর্থ চালানে রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মূল্যবান বিভিন্ন প্রকারের মেশিনারিজ মালামাল নিয়ে মোংলা বন্দরে নঙ্গর করেছে বিদেশী বানিজ্যিক জাহাজ। রাশিয়া নবরাশিশ বন্দর থেকে পন্য নিয়ে সরাসরি মোংলা বন্দরের জেটিতে এসে নঙ্গর করে পন্য বোঝাই পানামা পতাকাবাহী জাহাজ এম,ভি ইসানিয়া। যুদ্ধ সংগঠিত দেশ রাশিয়া থেকে ছেড়ে আসা জাহাজটি রবিবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বন্দরের ৮ নম্বর জেটিতে নঙ্গর করেছে।

বিদেশি এ জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট’র কনভেয়ার লজিস্টিক লিঃ এর প্রজেক্ট ম্যানেজার প্রকৌশলী মোঃ শিবলী জানান, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মেশিনারিজ মালামাল নিয়ে গত ১৭ আগস্ট রাশিয়ার থেকে ছেড়ে আসে এ জাহাজটি। এরপর ২৪ দিনের মাথায় জাহাজটি রবিবার দুপুরে মোংলা বন্দর জেটিতে ভিড়ে। এ জাহাজটিতে ২৭২ প্যাকেজের ৯৮৭.৬১৫ মেট্টিক টন ওজনের এসকল যন্ত্রাংশ ও মেশিনারিজ মালামাল রয়েছে। জাহাজ থেকে এ পণ্য বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে খালাসের কাজ শুরু করা হয়। খালাসের সাথে সাথেই এ পণ্য গুলো সড়ক পথে রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রে নেয়া হবে। ইসানিয়া জাহাজটির শিপিং এজেন্ট হলো কনভেয়ার শিপিং লাইন, আর পণ্য খালাস করে তা রুপপুর পৌঁছে দেয়ার কাজে রয়েছেন কনভেয়ার শিপিং লাইন’র অপর প্রতিষ্ঠান কনভেয়ার লজিস্টিক লিঃ।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তরফদার আব্দুল ওয়াদুদ জানান, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে মাঝখানে সাময়িক রূপপুরের মালামাল আসা বন্ধ ছিল। কিন্তু আবারও রাশিয়া থেকে রূপপুর পারমাণবিক কেন্দ্রের মালামাল আসতে শুরু করেছে মোংলা বন্দরে। তারই ধারাবাহিকতায় রাশিয়া থেকে রূপপুরের চতুর্থ চালানের মালামাল নিয়ে এম,ভি ইসানিয়া ১১ সেপ্টেম্বর রবিবার ভোররাতে জাহাজটি বঙ্গোপসাগর হয়ে হিরোনপয়েন্টে প্রবেশ করে। বন্দরের পশুর চ্যানেল দিয়ে সরাসরী মোংলা বন্দরের জেটিতে এসে পৌছায়। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের নৌ-পথে বানিজ্যিক ভাবে সমজতা হওয়া স্বাক্ষর হওয়ায় প্রথম জাহাজ আসে গত ১লা আগস্ট এম ভি কামিল্লা, ৫ আগস্ট এম ভি ড্রাগনবল ও ৬ সেপ্টেম্বর এম ভি ইউনিউইসডম রাশিয়া থেকে রূপপুর পারমাণবিক কেন্দ্রের মালামাল নিয়ে মোংলা বন্দরে আসে পন্য খালাস করে তার পুনরায় চলে যায় বিদেশী এ বানিজ্যিক জাহাজ।

আরও পড়ুন : সুন্দরবনের বন্যপ্রানী প্রজনন কেন্দ্র প্লাবিত

জনপ্রিয়