রায়গঞ্জে লম্পট আসাদুলের পরকিয়ায় স্ত্রী সন্তানের করুণ আর্তনাত

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২২ ৯:৫১:৪১ অপরাহ্ণ

রেজাউল করিম, সিরাজগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা
সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে স্ত্রী ও ৩ সন্তান রেখে মাদ্রাসা ছাত্রী আয়শা সিদ্দিকাকে নিয়ে পালিয়ে গেছে লম্পট আসাদুল ইসলাম।তিন সন্তান নিয়ে স্ত্রী অসহায় আমিনা খাতুন এখন পথে পথে ঘুড়ছে।

জানা যায়, উপজেলার ব্রহ্মগাছা ইউনিয়নের বারইভাগ (নয়াপাড়া) গ্রামের মোঃ আসাদুল ইসলাম চকনুর গ্রামের মৃত নাগর ঘোষের মেয়ে আমিনা খাতুনকে বিয়ে করে।দশ বছরের দাম্পত্য জীবনে তাঁদের ঘর আলোকিত করে ২টি ছেলে ও ১টি মেয়ে সন্তান জম্ন নেয়। ছেলে মো: হুসাইন শেখ (১০), মোঃ বাইজিত (৪) ও মেয়ে মোছাঃ সাইদা খাতুন এই ৩টি সন্তান রেখে লম্পট আসাদুল পাশের বাড়ীর আব্দুস ছালামের মেয়ে আয়শা খাতুনের সাথে পরকিয়ায় জড়িয়ে পরে।

এরই একপর্যায়ে জানুয়ারী মাসের শেষের দিকে লম্পট আসাদুল সুখের সংসার রেখে আয়শা খাতুনকে নিয়ে উধাও হয়।এলাকাবাসী বলছে লম্পট আসাদুল আয়শাকে ইতিমধ্যে বিবাহ করে ঢাকায় নতুন সংসার শুরু করেছে।

এদিকে পরকিয়া প্রেমের বলি হয়ে ৩টি সন্তানকে বাঁচাতে লম্পট আসাদুলের ১ম স্ত্রী আমিনা খাতুন মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে।আসাদুল উধাও হওয়ার আগে এলাকার বিভিন্ন ঋণ প্রদানকারী সংস্থার নিকট থেকে ৪ লাখ টাকা ঋণ গ্রহন করে।সেই ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে বিপাকে পড়েছে অসহায় আমিনা খাতুন।

এ ব্যাপারে আসাদুলের স্ত্রী আমিনা খাতুন বলেন, আমাদের সুখের সংসার ছিল।আমার স্বামী আসাদুল ছেলে মেয়েদের অনেক ভালোবাসতো। কিন্তু আয়শা খাতুন আমার সুখের সংসারে আগুন লাগিয়েছে।

এ বিষয়ে লম্পট আসাদুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

আরো পড়ুন : সলঙ্গায় টয়লেট থেকে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

জনপ্রিয়