রায়গঞ্জে লাফিয়ে বাড়ছে গো-খাদ্যের দাম

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, আগস্ট ২৭, ২০২২ ৭:৩৪:৩৬ অপরাহ্ণ

রেজাউল করিম- সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
সিরাজগঞ্জ রায়গঞ্জের প্রত্যেক হাট বাজারে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে গো-খাদ্যের দাম। ফলে খামারি মালিক ও সাধারন কৃষক পড়েছে চরম বিপাকে।

এলাকা ঘুরে জানা যায় গত এক মাসের ব্যবধানে ধানগড়া, চান্দাইকোনা, ঘুড়কা, ভুইয়াগাতি,হাট পাঙ্গাসি, রামেশ্বর গাতি, এরান্দহ ও গ্রামপাংগাসি নিমগাছি নলকা হাট বাজার এলাকায় দফায় দফায় গো-খাদ্যের দাম বেড়ে ধানের খড় ৫০০ শত টাকা মন,নেপিয়ার জাতের ঘাস ১ আটি ১৫ টাকা, গমের ভুষি ৪৫ থেকে ৫০ টাকা ,ভুট্রার গুড়া ৩৫ থেকে ৪০ টাকা ,ধানের গুড়া ১৫ থেকে ২০ টাকা, চাউলের খুদ ৪০ থেকে ৪৫ টাকা, খৈল ৪৫ থেকে ৫০ টাকা কেজি দরে খুচরো বাজারে বিক্রি হচ্ছে। ফলে খামারি মালিক ও সাধারন কৃষক চরম ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছে।

গ্রামপাংগাসি বাজারের সাধারণ ব্যাবসায়ি আব্দুল হাকিম ও বেল্লাল হোসেন বলেন, আমরা মহাজনের কাছথেকে যে দামে মাল ক্রয়করি সেই অনুযায়ি বিক্রি করি। রামেশ্বর গাতি গ্রামের আবদুল হাকিম নামের একজন খামারি বলেন গো-খাদ্যের দাম দিন দিন বাড়তে থাকায় গরুকে খাবার কম দিতে হচ্ছে ফলে খামারে উৎপাদনও কমে যাচ্ছে। একদিকে গো-খাদ্যের দাম বৃদ্বি অন্যদিকে হাট বাজারে গরুর দাম ও দুধের দাম খুব কম হওয়ায় খামারি মালিক ও সাধারন কৃষক বড় ধরনে ক্ষতির সম্মখিন হচ্ছে।

এব্যাপারে উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ও উপজেলা প্রসাশনের সুদৃষ্টি কামনা করছেন রায়গঞ্জের খামারি মালিক ও সাধারণ কৃষক।

আরও পড়ুন :সোনালী আশ ঘরে তুলতে ব্যস্ত রায়গঞ্জের কৃষক

জনপ্রিয়