সরকারকে অবশ্যই পদত্যাগ করতে হবে : মির্জা ফখরুল

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, আগস্ট ২২, ২০২২ ৭:৩২:৪৮ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমাদের একটাই কথা, দেশে সত্যিকার অর্থে গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা করার জন্য এই সরকারকে পদত্যাগ করতে বাধ্য করা। পদত্যাগের পর নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর, জাতীয় সংসদ বিলুপ্ত করা এবং নতুন একটি নির্বাচন কমিশন গঠনের মধ্য দিয়ে আমাদের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে এনে একটা পার্লামেন্ট-সরকার গঠন করা।

জাতীয় প্রেসক্লাবে আজ সোমবার এক সেমিনারে সভাপতির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। ‘দুর্নীতি জ্বালানি সংকটের উৎস’ শীর্ষক সেমিনারের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি।

মির্জা ফখরুল বলেন, এক সময় শিশুদের বর্গী এসেছে বলে ভয় দেখানো হতো। এখন এই আওয়ামী লীগ সরকার বর্গীদের ভূমিকা পালন করছে। আমাদের বলতে হবে আওয়ামী লীগ এলো দেশে। কেন না এই সরকার দেশকে সম্পূর্ণভাবে ফ্যাসিবাদী রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। এরা ভোটে নির্বাচিত নয়, জনগণের কাছে এদের কোনো জবাবদিহিতা নেই। সংসদে এদের ও নিয়মিত নীতি নিয়ে কথা বলা যায় না, আলোচনা হয় না।

তিনি আরও বলেন, কোথাও কথা বলা যাবে না, লেখা যাবে না, মত প্রকাশ করা যাবে না। এমনকি গতকাল প্রধানমন্ত্রী প্রায় ধমক দিয়েই কথা বলেছেন। নির্বাচন করবেন, ভাবখানা এই রকম। তিনি একটি অনুষ্ঠানে যোগদান করে কথা বলেছেন। চারদিকে নিরাপত্তা বেষ্টনী তৈরি করেছেন। বিষয়টা হচ্ছে এত সিকিউরিটি কেন? বারবার কেন বলতে হচ্ছে, ষড়যন্ত্র চক্রান্ত হচ্ছে? তাহলে কি দেশ আপনারা ১৫-১৬ বছর ধরে চালালেন। বলছেন সন্ত্রাসীদের আপনারা উধাও করে দিয়েছেন, তাহলে ওই ধরনের চিন্তা আসছে কেন? এরা প্রতিমুহূর্তে বাংলাদেশকে সম্পূর্ণভাবে মিথ্যা ও প্রতারণার মধ্য দিয়ে জনগণকে বোকা বানিয়ে দেশ চালাচ্ছে।

এ সময় আরও বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ওবায়দুল ইসলাম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম রিজু, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান প্রমুখ।

আরও পড়ুন : আওয়ামী লীগের কোনো বিদেশি প্রভু নেই : ওবায়দুল কাদের

জনপ্রিয়