সিরাজগঞ্জে জমে উঠেছে তরমুজ ব্যবসা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, এপ্রিল ১৭, ২০২২ ৫:১৭:৫৭ অপরাহ্ণ

রেজাউল করিম, সিরাজগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা
সিরাজগঞ্জ জেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে জমে উঠেছে গ্রীষ্মকালীন ফল তরমুজের বেচাকেনা। বর্তমানে দাম ক্রেতার নাগালের মধ্যে, স্বাদে অতুলনীয়, মিষ্টি ও ভিতরে লাল হওয়ায় জেলার হাটপাঙ্গাসী, নলকা, ভুইয়াগাতী, চান্দাইকোনা, বেলকুচি, এনায়েত পুর কাজিপুর ধানঘড়াসহ বিভিন্ন হাটবাজারে জমে উঠেছে তরমুজের বেচাকেনা।

অন্যান্য বাজারের পাশাপাশি হাটপাঙ্গাসী বাজারেও পাওয়া যাচ্ছে প্রচুর তরমুজ। তবে ক্রেতা বলছেন গত বছরের চেয়ে এবার একটু দাম বেশী।

এদিকে তরমুজ ব্যাবসায়ীরা বলছেন, গতবারের চেয়ে এবার একটু দাম বেশি, তবে আমাদের করার কিছু নেই। যেভাবে ক্রয় করতে হয় সে অনুযায়ী আমাদের বিক্রি করতে হচ্ছে। এখনো চাহিদা অনুযায়ী তরমুজ পাওয়া যাচ্ছে না বিধায় দাম একটু বেশি। তবে আমদানি বেশি হলে দাম কমে আসবে বলে জানান বেশ কয়েকজন ব্যাবসায়ী। দোকান গুলোতে প্রতি কেজি তরমুজ বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা থেকে ৩৫ টাকা দরে।

রায়গঞ্জ উপজেলার নাম প্রকাশে অনেচ্ছুক তরমুজ ব্যাবসায়ী জানান, সারা বছর বিভিন্ন ফল সহ তরমুজের ব্যবসা করে থাকি। আমাদের এলাকায় তরমুজের তেমন আবাদ হয় না বিধায় দাম একটু বেশী থাকে। আর তাছাড়া এই তরমুজের আমদানি বেশি হলে সামনে আরোও দাম কমে যাবে।

এদিকে রায়গন্জ গঙ্গারামপুর গ্রামের মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, আমি হাটপাঙ্গাসী বাজার থেকে একমাস আগে ৫০ টাকা কেজি দরে তরমুজ কিনেছিলাম, তেমন মিষ্টি হয়নি। একমাস পরে এসে আজ ৩৫ টাকা কেজি দরে ক্রয় করলাম। আগের চেয়ে বেশ মিষ্টি ও সুস্বাদু। দামও নাগালের মধ্যেই রয়েছে।

এ ব্যাপারে হাটপাঙ্গাসী বাজারের তরমুজ ব্যাবসায়ীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রথম দিকে দাম একটু বেশি থাকলেও বর্তমানে ক্রেতার নাগালের মধ্যেই রয়েছে, বেচাকেনাও বেশ ভাল হচ্ছে বলে জানান এই তরমুজ ব্যবসায়ী।

আরো পড়ুন : সিরাজগঞ্জে চর ভদ্রঘাট প্রতিবন্ধী স্কুলে পাঁচ বছরে একটি ক্লাসও হয়নি

জনপ্রিয়