১৪১ রানের লীড নিলো শ্রীলঙ্কা, সাকিবের পাঁচ উইকেট

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, মে ২৬, ২০২২ ৬:০৯:২৪ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
প্রথম সেশন মোটেই ভালো কাটেনি বাংলাদেশের। দ্বিতীয় সেশনেও মেলেনি উইকেটের দেখা। দুই সেশনেই দাপট দেখিয়ে সেঞ্চুরি তুলে নেন দুই লঙ্কান ব্যাটার দিনেশ চান্দিমাল ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ। দিনের তৃতীয় সেশনে এসে লঙ্কানদের এই শক্ত জুটি ভাঙে বাংলাদেশ। এই জুটি ভাঙার পর আর বেশিক্ষণ লঙ্কানদের স্থায়ী হতে দেননি সাকিব আল হাসান ও ইবাদত হোসেন।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা টেস্টের চতুর্থ দিনের তৃতীয় সেশনে প্রথম ইনিংসে ৫০৬ রানে থেমেছে শ্রীলঙ্কা। প্রথম সেশনে মোট ১৪১ রানের লিড পেল লঙ্কানরা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান করা ম্যাথুজ ৩৪২ বলে খেলেছেন ১৪৫ রানের ইনিংস।

বল হাতে বাংলাদেশের হয়ে উজ্জ্বলতা ছড়িয়েছেন সাকিব ও ইবাদত। ৯৬ রান দিয়ে ৫টি উইকেট নিয়েছেন সাকিব। এই নিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৯তম বার এক ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। সাকিবের সঙ্গে ১৪৮ রান দিয়ে চার উইকেট নেন ইবাদত।

গতকাল বুধবার টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ দাঁড়ায় ৫ উইকেটে ২৮২ রান। ৮৩ রানে পিছিয়ে থেকে আজ বৃহস্পতিবার টেস্টের চতুর্থ দিন শুরু করে শ্রীলঙ্কা। দিনের প্রথম সেশনেই এই ৮৩ রান যোগ করে লিড নেয় শ্রীলঙ্কা।

এরপর সেঞ্চুরি তুলে নেন দুই লঙ্কান ব্যাটার দিনেশ চান্দিমাল ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ। দুজনে মিলে গড়েন ষষ্ঠ উইকেটে বাংলাদেশের বিপক্ষে রেকর্ড জুটি। অবশেষে দিনের তৃতীয় সেশনের দ্বিতীয় ওভারে এই জুটি ভাঙেন ইবাদত। বাংলাদেশি পেসারের বল খেলতে গিয়ে কাভারে তামিম ইকবালের হাতে ক্যাচ তুলে দেন চান্দিমাল। ২১৯ বলে ১২৪ রান করে ফেরেন চান্দিমাল। মোট ৬৯.১ ওভার থিতু হয়েছে এই জুটি। এই সময়ে ম্যাথুজের সঙ্গে ৪৫০ বলে ১৯৯ রানের জুটি গড়েন তিনি।

চান্দিমাল ফেরার পর বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি লঙ্কানদের ইনিংস। ওই জুটি ভাঙার ৫৫ মিনিটের মধ্যেই অলআউট হয় শ্রীলঙ্কা। চান্দিমালের পর ব্যাট করতে নামা নিরোসান ডিকভেলা থিতু হতে পারেননি। ৯ রানে তাঁকে নিজের চতুর্থ শিকার বানান সাকিব। এরপর রমেশ মেন্ডিসকে এলবির ফাঁদে ফেলেন ইবাদত। জয়াবিক্রমাকে নিজের পঞ্চম শিকার বানান সাকিব। আর শেষ দিকে বিশ্ব ফার্নান্দো রানআউট করে সাকিবই ইতি টানেন লঙ্কানদের ইনিংসের।

এর আগে টেস্টের দ্বিতীয় দিন মুশফিকুর রহিমের লড়াইয়ের পর প্রথম ইনিংসে ৩৬৫ রানে থেমেছে বাংলাদেশ। দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান করা মুশফিক খেলেছেন ১৭৫ রানের ইনিংস। এ ছাড়া লিটন খেলেছেন ১৪১ রানের ইনিংস।

আরও পড়ুন : বল ছুঁড়ে শাস্তি পেলেন তাইজুল

জনপ্রিয়