করোনা মহামারি মধ্যে আইপিএল নিয়ে বিতর্ক, নাম প্রত্যাহার করছেন ক্রিকেটাররা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, এপ্রিল ২৬, ২০২১ ৬:৩৩:০৪ অপরাহ্ণ

চলমান বার্তা ডেস্ক রিপোর্ট:
ভারতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ মারাত্মক পর্যায়ে পৌঁছানোর মধ্যে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ থেকে মাঝপথে নিজেদের সরিয়ে নিয়েছেন আরও দু’জন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার।

এরা হলেন অ্যাডাম জাম্পা ও কেইন রিচার্ডসন। এর আগে তাদের স্বদেশী অ্যান্ড্রু টাই আইপিএল থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেন।জাম্পা এবং রিচার্ডসন ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে নিজেদের প্রত্যাহার করেন।

ওদিকে, ভারতের অফ স্পিনার রাভিচান্দ্রান অশ্বিনও পরিবারকে সময় দেয়ার কথা বলে আইপিএল থেকে বিরতি নিয়েছেন।অ্যান্ড্রু টাই ছিলেন রাজস্থান রয়্যালসের সাথে – নিজেকে সরিয়ে নিয়ে তিনি রোববারই উড়াল দিয়েছেন সিডনির উদ্দেশ্যে।

করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষা দিতে ক্রিকেটারদের জন্য ‘বাবল’ তৈরি করা হয়েছে, কিন্তু এখন সেটাই অনেকের জন্য হয়ে উঠেছে মানসিক চাপের কারণ।

টাই আশঙ্কা করছিলেন যে অস্ট্রেলিয়া যদি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকার কারণে বর্ডার বন্ধ করে দেয়, তাহলে তিনি বাড়ি ফিরতে পারবেন কি-না।

অস্ট্রেলিয়ার রেডিও স্টেশন এসইন-কে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “আমি চেষ্টা করেছি অস্ট্রেলিয়ায় লকডাউন দেয়ার আগেই যাতে আমি ফিরতে পারি।”

মারাত্মক করোনাভাইরাস সংকটের কারণে অনেক দেশই ভারতের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে, আর অস্ট্রেলিয়াও লকডাউনে যেতে পারে বলে অনেকে আশঙ্কা করছেন। মুম্বাই থেকে কাতারের দোহা হয়ে অস্ট্রেলিয়া ফিরেছেন অ্যান্ড্রু টাই।

অস্ট্রেলিয়ান এই ক্রিকেটার বলেন, অনেকেই (ক্রিকেটার) দুশ্চিন্তায় আছে এবং অনেকে তার সাথে যোগাযোগও করেছে এটা জানতে যে কী পথে তিনি অস্ট্রেলিয়ায় ফিরেছেন।

অন্যদিকে অশ্বিন টুইট করে বলেন, “আইপিএল থেকে আপাতত বিরতি নিচ্ছি। এখন আমার পরিবার ও পরিবারের আশেপাশের মানুষের সাথে থাকবো, কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াই করতে। যদি সব ঠিক পথে আসে, তবে আবার খেলায় ফিরবো।”

ওই টুইটে তার দল দিল্লি ক্যাপিটালসের কোচ, বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক রিকি পন্টিং মন্তব্য করেছেন, নিজের পরিবারের খেয়াল রাখো, দ্রুত দেখা হবে।

ভারতে গত পাঁচ দিন ধরেই করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিশ্ব রেকর্ড হচ্ছে। সোমবারে দেয়া তথ্যে বলা হয়েছে যে আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে সাড়ে তিন লক্ষের বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন। রয়াল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে খেলা জাম্পা এবং রিচার্ডসনও ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে ভারত ত্যাগ করেছেন।

ফ্র্যাঞ্চাইজের একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, তারা ক্রিকেটারদের সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান জানায় এবং এ ব্যাপারে তাদের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে।

তবে অস্ট্রেলিয়ার শীর্ষ ক্রিকেটাররা এখনও ভারতেই আছেন। স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, প্যাট কামিন্সদের মতো খেলোয়াড়রা খেলা চালিয়ে যাচ্ছেন।

অস্ট্রেলিয়া করোনাভাইরাস আবির্ভাবের পর থেকেই বেশ কঠোর পদক্ষেপ নিয়ে চলেছে। সীমান্ত বন্ধ করে এবং লকডাউনের মতো ব্যবস্থা নিয়ে তারা সাফল্যও পেয়েছে।

“আইপিএল এখনই স্থগিত করা উচিত,” এমন মন্তব্য করেছেন শোয়েব আখতার। আমাদের এখন বিনোদনের প্রয়োজন নেই। আইপিএল প্রয়োজন নেই, পিএসএল প্রয়োজন নেই। আমাদের এখন এক হয়ে লড়াই করতে হবে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে।”

পাকিস্তানের সাবেক এই ফাস্ট বোলার বলেন, “আইপিএল-এর অর্থ তুলে মানুষকে দেন। মানুষ মারা যাচ্ছে, নতুন অক্সিজেন কিনুন। এখন অক্সিজেন প্রয়োজন।”

শোয়েব আখতার তার ব্যক্তিগত ইউটিউব চ্যানেলে আর্জি জানান এই বলে – ভারতের অবস্থা দেখুন, পাকিস্তানে কারফিউ দিয়ে দেন। প্রয়োজন হলে সেনা নামানোর কথাও বলেন তিনি।

আরো পড়ুন : পাল্লেকেলে টেস্ট ড্র

জনপ্রিয়

%d bloggers like this: